পার্ককে অভিশংসনের পক্ষে রায়
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট পার্ক জিউন হাইকে অভিশংসনের পক্ষে দেশটির পার্লামেন্টে রায় এসেছে।

দুর্নীতির অভিযোগ ওঠার ছয় সপ্তাহের মাথায় শুক্রবার পার্লামেন্টে এ সংক্রান্ত প্রস্তাব ২৩৪-৫৬ ভোটে অনুমোদন পেয়েছে। এর অর্থ পার্কের ক্ষমতাসীন দল সায়েনুরু পার্টির এমপিরাও তার বিপক্ষে ভোট দিয়েছেন। খবর বিবিসির।

অভিশংসনের পক্ষে ভোট বেশি পড়লেও এখনই তাকে সরতে হচ্ছে না। দক্ষিণ কোরিয়ার নিয়ম অনুযায়ী, পার্লামেন্টের সিদ্ধান্তের পর পার্কের ক্ষমতা আপাতত প্রধানমন্ত্রীর ওপর বর্তাবে। পার্লামেন্টের ভোটাভুটিতে অভিশংসনের যে সিদ্ধান্ত হয়েছে তাতে ১৮০ দিনের মধ‌্যে অনুমোদন দেবে দেশটির সাংবিধানিক আদালত।

অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগে পার্কের বিরুদ্ধে রাস্তায় নামে দক্ষিণ কোরিয়ার হাজারো জনতা। পার্কের ক্ষমতাকে ব্যবহার করে তার বিশ্বস্ত সহযোগী চয় সুন সিল বিভিন্ন বিষয়ে প্রভাব খাটিয়ে অর্থ উপার্জন করেছেন বলে অভিযোগ ওঠে।

এ দুর্নীতিতে পার্কেরও ভূমিকা রয়েছে বলে আদালতে বলেছেন আইনজীবীরা। যদিও পার্ক এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

এসব অভিযোগের জেরে চলমান বিক্ষোভের পরিপ্রেক্ষিতে পার্ক জানিয়েছেন, তিনি পদত্যাগ করবেন না। বিষয়টি তিনি পার্লামেন্টের হাতে ছেড়ে দিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার দেশটির পার্লামেন্টে পার্কের অভিশংসনের প্রস্তাব উত্থাপিত হয়। শুক্রবার ভোটে এমপিরা পার্কের সরে যাওয়ার পক্ষে রায় দেন।

সংসদের কমপক্ষে দুই-তৃতীয়াংশ ভোট পড়লেই পার্ককে অভিশংসন সম্ভব হতো। অর্থাৎ ৩০০ এমপির  মধ্যে ২০০ এমপির ভোট লাগতো, যেখানে অভিশংসের পক্ষে পড়েছে ২৩৪টি ভোট।

গণমাধ্যমে প্রকাশিত কিছু প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, সেনুরি পার্টিতে পার্কের বিরুদ্ধে ভোট দেয়ার মতো অনেকেই রয়েছেন। আর যদি ভোট বিপক্ষে যায়। তবে তা মেনে নেবেন বলে চলতি সপ্তাহে ঘোষণা দিয়েছিলেন পার্ক।

০৯ ডিসেম্বর, ২০১৬ ১৮:৩০:৩৫