যেসব ফুল সুন্দর ও আকর্ষণীয় করে তোলে
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট


কিছু ফুল আছে যেগুলো শুধু সুগন্ধই ছড়ায় না, সেসব ফুল থেকে তৈরি কসমেটিক্স ত্বককে করে তোলে আরও সুন্দর ও আকর্ষণীয়। ছবিঘরে থাকছে সেরকমই কিছু ঔষধি ফুলের কথা।

বেলি: খোঁপায় বেলিফুলের মালা জড়ায়নি এমন বাঙালি নারী খুঁজে পাওয়া মুশকিল। অত্যন্ত মিষ্টি গন্ধের এই ফুলের জন্ম কাশ্মিরের হিমালয় পর্বত এবং চীনে। তবে এখন অনেক দেশেই এর উৎপাদন হয়। বেলি ফুলের তৈরি ক্রিম মুখমন্ডল ও শরীরের ত্বককে সুন্দরতো করেই, স্নিগ্ধও রাখে। হাজারো বছর আগে চীনাদের তৈরি বেলি ফুলের সুগন্ধী তেলকে আরবরা নাম দিয়েছিলো ‘জেসমিন অয়েল’ – যে তেল শরীরে এনে দেয় উষ্ণতা আর মনকে করে প্রফুল্ল।

জবা: জবার পাপড়ি দিয়ে তৈরি চা রোগ সংক্রমণ রোধে ও ধমনী শক্ত রাখতে সহায়তা করে। এটি অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়া হিসেবেও কাজ করে। এছাড়া জবা ফুলে রয়েছে বিভিন্ন ফলিক অ্যাসিড, যার মাস্ক মুখমন্ডলের ত্বক পরিষ্কার ও মসৃণ করে বলে জানিয়েছেন ফার্মাসিস্ট হাফারকর্ন।

লিলি: গ্রিক দেবির নাম অনুসারে রাখা রংধনুর মতো সুন্দর লিলি ফুল। দুশো’রও বেশি রকমের লিলি ফুল রয়েছে। ছয় পাপড়ি বিশিষ্ট শুকনো লিলি কন্দ থেকে তৈরি হয় মূল্যবান ‘পারফিউম অয়েল’। ফুলের ভেতরে থাকা আঠার মতো পদার্থটি হাতের ত্বককে পুনর্জীবিত করে আর্দ্রতা ফিরিয়ে আনতে সহায়তা করে, বলে জানিয়েছেন জার্মানির ভুপার্টাল শহরের ফার্মাসিস্ট সাবিনে হাফারকর্ন।

শাপলা: শাপলার আদি জন্ম আমেরিকা, এশিয়া এবং অস্ট্রেলিয়ায়। একে বিশুদ্ধতার প্রতীক হিসেবে ধরা হয়ে থাকে। শাপলার ডাটা ও শেকড় হজমে সহায়তা করে। এছাড়া ঘুমের সমস্যায় ঔষধি গাছ হিসেবেও শাপলা ব্যবহৃত হয়ে থাকে। শাপলা ফুল মুখের ত্বকের নানা সমস্যা দূর করে ও ত্বককে স্নিগ্ধ রাখে। শাপলা ফুল দিয়ে তৈরি চোখের ক্রিম, গোসলের লিকুইড সাবান, বডিলোশন, বডি স্প্রে রয়েছে।

এক ধরনের অর্কিড: অসম্ভব সুন্দর এই অর্কিড ফুলের উৎপত্তি অ্যামেরিকার গ্রীষ্মমন্ডলীয় এলাকায়। ১,৭০০ বছর আগে সমুদ্রে ভ্রমণকারীরা ইউরোপে এই ফুল নিয়ে এসেছেন। কাঁটার মালার মতো দেখতে এই ফুলের বিচিতে রয়েছে এক ধরনের অ্যাসিড, যা ত্বকের অসমতাকে সমান ও মসৃণ করে। সংবেদনশীল ত্বকের জন্য রয়েছে ক্রিম, বডিলোশন, সাবান, শ্যাম্পু ইত্যাদি।

 


২৩ মে, ২০১৫ ২০:৩১:৫৩