কে কত টাকার বাড়িতে থাকেন বলিউডের এই তারকারা?
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম
অ+ অ-প্রিন্ট


কেউ পৈতৃক সূত্রে মালিক। কেউ বা আবার পরিশ্রমের টাকা দিয়ে কিনেছেন। তবে যে সূত্রেই হোক, বলিউডের এই সব তারকার বাড়ির দাম শুনলে চোখ কপালে উঠতে পারে অনেকেরই। সমুদ্রের ধারঘেঁষা বাইরামজি জিজিভয় রোডে দেখা হয়ে যেতে পারে সালমান খানের সঙ্গে। কেননা সেখানে গ্যালাক্সি অ্যাপার্টমেন্টের দুটো ফ্ল্যাটে থাকেন তিনি। দোতলায় মা-বাবা আর একতলা সালমান। সালমানের খোলামোলা ফ্ল্যাটের দাম১৬ কোটি টাকা!

হরিবংশ রাই বচ্চন ও তেজি বচ্চনের ছেলের ছোটবেলা কেটেছে মুম্বাইয়ের ‘প্রতীক্ষা’-য়। পাঁচটি বাংলোর মালিক সেই মানুষটি সপরিবার থাকেন জুহুর বাংলো ‘জলসা’য়। নিশ্চয়ই বুঝেছেন তিনি কে? বলিউড শাহেনশা অমিতাভ বচ্চনই সে বাংলোর মালিক। ‘সত্তে পে সত্তা’-য় অভিনয়ের জন্য পরিচালক রমেশ সিপ্পি তা অমিতাভকে উপহার দেন। দাম মোটামুটি ৫০ কোটি টাকা।

পারিবারিক সূত্রে হরিয়ানায় ‘পটৌডী প্যালেসে’র মালিক সাইফ আলি খান। ১৫০ রুম, সাতটি বেডরুম, একটা বিশাল বড় ড্রয়িং রুম ছাড়াও এতে রয়েছে সাতটি বিলিয়ার্ড রুম। এই প্রাসাদের আনুমানিক মূল্য ৫৫ কোটি টাকা।

জন আব্রাহাম থাকেন একটি পেন্টহাউসে। নামটাও গালভরা! ‘ভিলা ইন দ্য স্কাই’। জনের ডিজাইনার ভাই অ্যালান এটির মূল কারিগর। দু’টি পুরনো বাড়িকে ভেঙে এই বিশাল পেন্টহাউস গড়েছেন অ্যালান। টু-লেভেল এই অ্যাপার্টমেন্ট রয়েছে একটা চোখজুড়োনো টেরাস। বাজারদর মোটামুটি ৬০ কোটি টাকা!

মুম্বাইয়ের বান্দ্রা ওয়েস্ট-এ সালমান খানের পড়শি হলেন আমির খান। ৫ হাজার বর্গফুট জায়গা জুড়ে থাকা বেলা ভিস্টা অ্যাপার্টমেন্টস-এ থাকেন তিনি। মডার্ন এশিয়ান ও ইউরোপিয়ান কায়দায় তৈরি এর অন্দরমহল। স্ত্রী কিরণ রাও ও ছেলে আজাদও থাকেন আমিরের সঙ্গেই। এর দামটাও জেনে নিন। প্রায় ৬০ কোটি টাকা!

মুম্বাইয়ের প্রাইম বিচে রয়েছে অক্ষয় কুমারের বিশাল দোতলা বাংলো। বলিউডে তেমন নামডাক হওয়ার আগেই এই প্লটটি কেনেন অক্ষয়। যে ডিজাইনাররা সইফ আলি খানের বাংলো সাজিয়েছিলেন, তারাই অক্ষয়ের অন্দরের খেয়াল রেখেছেন। বলি-সেলেবদের সবচেয়ে দামি বাংলোদের মধ্যে অন্যতম এই বাংলোটি। এর দাম নাকি প্রায় ৮০ কোটি টাকা!

মুম্বাইয়ের হরে রাম হরে কৃষ্ণ মন্দিরের কাছেই রয়েছে রাজ কুন্দ্রা ও শিল্পা শেট্টির বিলাসবহুল বাংলো। নাম ‘কিনারা’। দামটা শুনে অনেকেরই মাথা ঘুরে যেতে পারে। এর দাম নাকি ১০০ কোটি টাকা! শিল্পা নিজেই এটি মনের মতো করে সাজিয়েছেন।

বলিউড বাদশা শাহরুখ খান যে মন্নত-এ থাকেন, তা তো অনেকেই জানেন। এ বাংলোটি যে তার অত্যন্ত প্রিয়, তা বহু বার বলেছেন শাহরুখ। এক বার তো বলেও বসেন, “কখনও যদি আমার টাকাপয়সা চলে যায়, আমি সব কিছু বেঁচে দেব। তবে কখনই মন্নত বিক্রি করব না।” ২০০ কোটি টাকার মন্নতের মালিকই তো এমনটা বলতেই পারেন! তথ্যসূত্র: আনন্দবাজার


০৬ মে, ২০১৯ ২২:১৭:৩৩