সঙ্গীতশিল্পী শাহনাজ রহমতুল্লাহ আর নেই
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম
অ+ অ-প্রিন্ট
প্রখ্যাত সঙ্গেীত শিল্পী শাহনাজ রহমতুল্লাহ মারা গেছেন। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। শনিবার দিবাগত রাতে রাজধানীর বারিধারায় হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে নিজ বাসায় তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬৭ বছর। রোববার ( ২৪ মার্চ) বাদ যোহর বারিধারায় পার্ক মসজিদে তাঁর নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হবে বলে পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। বনানীর সামরিক কবরস্থানে তাঁকে দাফন করা হবে।

১৯৫২ সালে জন্ম নেয়া এ সঙ্গীত শিল্পীর গাওয়া দেশাত্মবোধক গানগুলো আজো অত্যন্ত জনপ্রিয়। তার গাওয়া এক নদী রক্ত পেরিয়ে, একবার যেতে দে না আমার ছোট্ট সোনার গাঁয়ে, একতারা তুই দেশের কথা বলরে‌ এবার বল গান তিনটি বিবিসি জরিপে সর্বকালের সেরা বিশটি বাংলা গানের তালিকায় স্থান পায়। এছাড়া আরেকটি গানের অন্যতম শিল্পীও তিনি। গাজী মাজহারুল আনোয়ারের লেখা আনোয়ার পারভেজের সুরে জয় বাংলা বাংলার জয়। এটা ধরলে তিনি ২০টির মধ্যে ৪টি গানের সাথে যুক্ত।

এছাড়াও তার জনপ্রিয় গানগুলোর মধ্যে রয়েছে- প্রথম বাংলাদেশ আমার শেষ বাংলাদেশ, আমায় যদি প্রশ্ন করে, যে ছিল দৃষ্টির সীমানায়।

পাকিস্তান আমলে রেডিওতে তার নাম বলা হতো শাহনাজ বেগম। মাত্র ১১ বছর বয়সে রেডিও এবং চলচ্চিত্রের গানে তার যাত্রা শুরু হয় ১৯৬৩ সালে। ১৯৬৪ সালে টিভিতে প্রথম গান করেন। সে হিসাবে সঙ্গীত শিল্পী হিসাবে তার পঞ্চাশ বছর পূর্ণ হয় ২০১৪ সালে।

শাহনাজ রহমতুল্লাহর বড় ভাই সুরকার আনোয়ার পারভেজ ছিলেন গীতিকার গাজী মাজহারুল আনোয়ারের বন্ধু। শাহনাজের আরেক ভাই জাফর ইকবাল ছিলেন জনপ্রিয় নায়ক এবং গায়ক। আনোয়ার পারভেজ ছাড়াও আলাউদ্দিন আলী, খান আতা প্রমুখের সুরে গান গেয়েছেন শাহনাজ রহমতুল্লাহ। পাকিস্তানে থাকার সুবাদে করাচী টিভিসহ উর্দু ছবিতেও গান গেয়েছেন। তিনি গান শিখেন গজল সম্রাট মেহেদী হাসানের কাছে।

 


 

২৪ মার্চ, ২০১৯ ০৮:৫৮:০১