খোলামেলা ভিডিও মুছে ফেলার ঘোষণা দিলেন সানাই
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট


নিজের ফেসবুক আইডি দিয়ে লাইভে এসে ক্ষমা চাওয়ার পর মুচলেকা নিয়ে অভিনেত্রী সানাই মাহবুব সুপ্রভাকে ছেড়ে দিয়েছে পুলিশ। এর আগে রবিবার দুপুরে ইন্টারনেটে অপেশাদার এবং অপ্রাসঙ্গিক ভিডিও ছড়ানোর অভিযোগে বিতর্কিত এই মডেলকে আটক করে পুলিশ। সেখানে ডিবি পুলিশের হেফাজতে থেকে নিজের ফেসবুক আইডি দিয়ে লাইভে এসে নিজের কৃতকর্মের জন্য ক্ষমা চান সানাই। এ সময় তাকে বোরকাপরা অবস্থায় দেখা যায়। মুখে ছিল লজ্জামাখা হাসি।

সানাই মাহবুব প্রায়শই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিজের ভিডিও প্রকাশ করে আলোচনা-সমালোচনার জন্ম দিয়ে আসছিলেন। সেসব ভিডিওর বেশির ভাগই অশ্লীলতার দায়ে অভিযুক্ত। সেই অভিযোগের জেরে তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে পুলিশ। পরে পর মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দিয়েছে পুলিশ।

পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদে নিজের অপরাধ স্বীকার করেন সানাই। তারপর ডিবি কার্যালয়ে বসে নিজের অফিসিয়াল ফেসবুক পাতা থেকে লাইভে এসে কৃতকর্মের জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন। ভবিষ্যতে এ ধরণের ভিডিও প্রচার না করারও অঙ্গীকার করেন তিনি। একইসঙ্গে তার ফেসবুক পেজে আগের যেসব ভিডিও আছে তা মুছে ফেলার ঘোষণা দেন।

ভিডিও বার্তায় সানাই বলেন,‘আমার কাজের জন্য সবাই কাছে ক্ষমা চাচ্ছি। আমার সমালোচিত ভিডিওগুলো কোনো বিশেষ উদ্দেশ্য বা আর্থিক লাভের জন্য করিনি। তদুপরি অদ্য সাইবার ক্রাইম ইউনিটে এসে এটা আমার বিশেষভাবে অনুধাবন হয়েছে যে,এই কনটেন্টগুলো দেখে কোনো কোনো শ্রেনীর মানুষ-বিশেষ করে শিশুরা, যারা ১৮ বছরের নীচে; তারা ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। ওইসব ভিডিওধারণ করা আমার ভুল ছিল।

ভবিষ্যতে আর এ ধরণের কাজ করবেন না জানিয়ে সানাই আরও বলেন, ‘আমি এদেশের নগরিক হিসেবে সুস্থ সংস্কৃতি বিকাশে আইন মেনে চলে একজন ভালো শিল্পী হতে চাই। আমার ইতোপূর্বে করা একক বা যৌথভাবে করা বিব্রতকর ছবি বা ভিডিওর জন্য আন্তরিকভাবে দুঃখিত! ভবিষ্যতে এ ধরনের কাজ থেকে বিরত থাকব। আমার নিয়ন্ত্রণে থাকা সব প্রোফাইল থেকে এ ধরনের কনটেন্ট মুছে ফেলব।

এর আগে গত বছর ফেব্রুয়ারিতে বাংলাদেশ সুপ্রিম কোটের আইনজীবি অ্যাডভোকেট ডিএই দিপু উকিল নোটিশ পাঠিয়েছিলেন সানাইয়ের বাসায়। উকিল নোটিশে শানাইয়ের অশালীন পোস্ট সরিয়ে নিতে বলা হয়েছিল। সানাই নির্মাতা গাজী মাহবুব এর ‘ভালোবাসা ২৪×৭’ সিনেমাটির মাধ্যমে চলচ্চিত্র জগতে পা রাখেন। এর আগে ‌ফ্যাশন, মডেলিং করতেন।


১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ১৮:৫৫:০৩