চাইলে অনেক কিছুই করতে পারতাম, জেসিয়া প্রসঙ্গে সালমানের মা
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’-এ প্রতিযোগিতার মাধ্যমে আলোচনায় আসেন জেসিয়া ইসলাম। ২০১৭ সালে তিনি ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ বিজয়ী হয়েছিলেন। মিস ওয়ার্ল্ডের মূল প্রতিযোগিতায় সেরা ৪০-এ স্থান পেয়েছিলেন তিনি। প্রতিযোগিতা থেকে ফেরার পরই সালমান মুক্তাদিরের সঙ্গে প্রেমের বিষয়টি সামনে আসে। দু’জনেই খোলাখুলিভাবে কথা বলেন। একই রেডিও স্টেশনে গিয়ে তারা প্রকাশ্যেই প্রেমের বিষয়টি পরিষ্কার করেন। এরই মধ্যে তাদের অনেক অন্তরঙ্গ ছবি ভাইরাল হয়।

সম্প্রতি গভীর রাতে সালমানের বাড়ির গেটে গিয়ে ধাক্কাধাক্কি ও ইট নিক্ষেপের পর নতুন করে আলোচনায় এসেছেন এ জুটি। ওই রাতের ঘটনায় ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েছেন তারা। রাতে সালমানের বাসার বিপরীত বাসা থেকে ধারণকৃত একটি ভিডিও সামাজিক মাধ্যমে তুমুল হইচই ফেলে দেয়।

জেসিয়ার ওই আচরণ নিয়ে কথা হয়েছে দুই পরিবারের মধ্যেও। সালমানের মা জেসিয়ার মায়ের সঙ্গে কথা বলেছেন। জেসিয়া জানান, সালমান আমার বিশ্বাসের সঙ্গে প্রতারণা করেছে। আমার সম্পর্ককে অসম্মান করেছে, অমর্যাদা দিয়েছে। আমার মা–ও তাই জানিয়ে দিয়েছে।

এদিকে ওই রাতের ঘটনায় জেসিয়ার ওপর ক্ষুব্ধ হয়েছেন সালমানের মা। তিনি গণমাধ্যমকে বলেন, ‘জেসিয়া আমার ছেলের ভালো বন্ধু এমনটাই জানতাম। আমাদের বাসায় যাওয়া–আসা ছিল। কিন্তু হঠাৎ সেদিনের আচরণ আমাদের কাছে ছিল একেবারে অচেনা। আমার ছেলে সালমান ও মেয়ের বন্ধুরা টেলিভিশন দেখছিল। হঠাৎ জেসিয়ার শব্দ শুনি। এত রাতে তার আসার খবরে ঘাবড়ে যাই। এভাবে কোনো মেয়ে ভাঙচুর করতে পারে না। আমরা ভালো দেখে হয়তো বিষয়টাতে বেশি জটিলতা করিনি। চাইলে কিন্তু অনেক কিছুই করতে পারতাম।’

তবে জেসিয়া ইসলাম বলেন, ‘আমাদের প্রেমের সম্পর্কের বয়স দেড় বছরের। সালমান কিছুদিন ধরে আমার কাছে কিছু বিষয় লুকাচ্ছিল। ঘটনার দিন সালমান আমার সঙ্গে সালমান একটা বিষয়ে মিথ্যা বলে। আমি বিষয়টি বুঝতে পেরে ওর বাসায় যেতে বাধ্য হই। সে ভাবতে পারেনি, এত রাতে আমি যাব। কিন্তু আমার আর কোনো উপায় ছিল না।’

 

১৮ জানুয়ারি, ২০১৯ ২৩:২৫:০১