শাহরুখের ছবির গান বাজলেই স্কুলে আসে শিক্ষার্থীরা
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট


শিক্ষকদের আহ্বান নয়, ‘তুঝে দেখা তো ইয়ে জানা সানম’ গান বাজালেই ঝাঁকে ঝাঁকে কোমলমতি শিক্ষার্থীরা স্কুলে ছুটে আসে। টানা দশ মিনিট গান বাজানোর পরেই শুরু হয় প্রতিদিনের ক্লাস! আফ্রিকা মহাদেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের ছোট্ট দেশ ইথিওপিয়াতে এমন চিত্র দেখা যায়। অনগ্রসর এই দেশের মানুষেরা বলিউড ছবির অন্ধ ভক্ত। ৭ বছরের শিশু থেকে শুরু করে সত্তর বছরের বয়স্ক সবার প্রথম পছন্দ বলিউড ছবি। আট দশকেরও বেশি সময় ধরে ইথিওপিয়ার মানুষেরা বলিউডের ভক্ত।

বিশেষ করে সেখানে শাহরুখ খান অভিনীত ছবির ভক্তই বেশি। শাহরুখের যেকোনো ছবি তাদের পছন্দের প্রথম তালিকায়। একেবারে পিছিয়ে পড়া এই দেশে শিশুরা স্কুলে আসতেই চায় না। কারণ ক্ষুধা ও দারিদ্র তাদের নিত্যদিনের সঙ্গী। পেটে ক্ষুধা নিয়ে কে-বা পড়তে চায়। তাই তো ব্যতিক্রমী পন্থা অবলম্বন করেছেন শিক্ষকেরা।

সম্প্রতি ইথিওপিয়ায় কর্মরত এক ভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে এমন তথ্য জানান। ইথিওপিয়ার কাছে ‘মাদার ইন্ডিয়া’-ই হলো ‘মাদার অব সিনেমা’। ইথিওপিয়ানরা বলিউডের ছবির ভাষা বোঝার জন্য অনুবাদকের দ্বারস্থ হন। এখানে আছে বহু অনুবাদক। ‘কাল হো না হো’, ‘বাজিগর’, ‘কুছ কুছ হোতা হ্যায়’, ‘জব তক হ্যায় জান’ বা ‘মুজসে শাদি করোগি’, ‘কহো না পেয়ার হ্যায়’— ছবি ও ছবির গান এই দেশে অত্যন্ত জনপ্রিয়। - আনন্দবাজার পত্রিকা।


০৩ জানুয়ারি, ২০১৯ ১৫:২৭:২৪