নওয়াজের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ দৃশ্য ভাইরাল, যা বললেন অভিনেত্রী
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
‘সেক্রেড গেমস’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন ইশিকা দে। পর্দায় তার উপস্থিতি বেশি সময়ের না হলেও আলোচনায় এখন অন্য কারণে। নওয়াজ উদ্দিনের সঙ্গে তার সেক্স সিনের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল। বড় মাপের একজন অভিনেতা, তার সঙ্গে এ রকম একটা দৃশ্য, ভয় পাননি?  

ইশিকা বলছেন, ‘নওয়াজ বুঝতেই দেননি যে তিনি অত বড় মাপের অভিনেতা। প্রথমে উনি একটু ইতস্তত বোধ করছিলেন। আমি বললাম, স্যর ফিল ফ্রি, আই হ্যাভ ডান আ ক্যারেক্টার লাইক দিস। আমার অসুবিধে হবে না। অনুরাগ কাশ্যপও আমাকে কমফর্ট করার জন্য বারবার বলছিলেন, তুম ঠিক হো তো? দৃশ্যটায় নওয়াজ আমাকে মারছিলেন। ওই টেকগুলোর পর বারবার আমাকে সরি বলছিলেন নওয়াজ স্যর।’   

ভাইরাল হওয়া সিনের প্রশংসা যেমন হচ্ছে, তেমনই ট্রোলড-ও হচ্ছেন ইশিকা। যা নিয়ে তাঁর মন্তব্য, “এর আগেও অনেক শর্ট ফিল্মে এ রকম সিন করেছি। আমার কাছে পারফরম্যান্সই আসল। বাবা-মাকে ছেড়ে, বয়ফ্রেন্ডের সঙ্গে ব্রেকআপ করে, কলকাতা ছেড়ে একা মুম্বই চলে আসি, শুধু অভিনয় করব বলে। মাকে যখন ফোন করে নাওয়াজের সঙ্গে এই সিনের কথা বলি, মা বলল করিস না, লোকে খারাপ বলবে। মাকে বললাম, সারা বিশ্ব কী ভাবল আমার কিছু যায় আসে না। তুমি চাও কি না বলো? মা আর কিছু বলেনি।”

পরিচালক অনুরাগ কাশ্যপ সম্পর্কে ইশিকা বলেন, “প্রথম দিন ভয়ে আমার হাত-পা ঠান্ডা হয়ে গিয়েছিল। অত বড় পরিচালক! ‘গ্যাংস অফ ওয়াসেপুর’, ‘শয়তান’-এর মতো সুপারহিট সব ছবি করেছেন। তাঁর ছবিতে শুধু অভিনয় নয়, তাঁর সামনে অভিনয় করতে হবে, এটা ভেবে ভয়টা আরও বাড়ছিল। কিন্তু সেটে ঢুকতেই অনুরাগ আমার দিকে এগিয়ে এসে নর্ম্যালি জিজ্ঞেস করলেন, “ক্যায়সে হো আপ?” আমি তো তখনও বুঝে উঠতে পারছি না এটা স্বপ্ন না সত্যি। তার পর যত কথা এগোল, বুঝলাম অনুরাগ কতটা ডাউন টু আর্থ। একটা টেক শেষ হচ্ছে আর জিজ্ঞেস করছেন, “আর ইউ ওকে? সব ঠিকঠাক হ্যায়?”

সিন শেষে অ্যাপ্রিসিয়েশন পেলেন কিছু? ইশিকা বলেন, “মনিটরে আমি আর নওয়াজউদ্দিন স্যর একসঙ্গে সিনটা দেখছিলাম। আমি মনিটর কম, অনুরাগের মুখ বেশি দেখছিলাম। বোঝার চেষ্টা করছিলাম ভাল না খারাপ করেছি। সিন শেষ হতেই বললেন, ‘ব্যাং অন। টু গুড ইশিকা!’ তার পর বললেন, ‘ম্যাঁয় মুকেশ ছাবড়া (কাস্টিং ডিরেক্টর) কো টেক্সট করুঙ্গা। বহুত অচ্ছা কাম কিয়া হ্যাঁয় তুমনে।’ উনি সত্যিই মুকেশজিকে টেক্সট করেছিলেন। মুকেশজি পরে আমাকে টেক্সট করে বলেন, ‘ইউ মেড মি প্রাউড ইশিকা।’ সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন

 

 

 

১৭ জুলাই, ২০১৮ ০০:১০:৪০