আমার চেয়ে খারাপ স্বামী পৃথিবীতে হতে পারে না
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
চলচ্চিত্র ক্যারিয়ার নিয়ে নিজের ব্যস্ততা বোঝাতে কলকাতার জনপ্রিয় অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় বলেছেন, আমার চেয়ে খারাপ স্বামী, খারাপ বাবা পৃথিবীতে হতে পারে না। তার পরেও যারা আমার সঙ্গে রয়েছে, এটা তাদের কৃতিত্ব। তারাও বুঝে গিয়েছে, এই মানুষটা সকাল থেকে রাত অবধি কাজ আর ইন্ডাস্ট্রির বাইরে কিছু ভাবে না।

পরবর্তী প্রজন্মকে কী শিক্ষা দিয়ে যেতে চান জানতে চাইলে প্রসেনজিৎ বলেন, কেউ খুব অপমান করলে

স্বাভাবিক প্রবণতা থাকে, প্রতিশোধ নেওয়ার। স্ট্রাগল পিরিয়ডে আমাকে যারা লাঞ্ছনা করেছেন, পরে তারাই আমাকে বলেছেন, ‘তুই রাজি হলে প্রযোজক ছবিটা করবে।’ আমি পাঁচ মিনিট সময় নিইনি ‘হ্যাঁ’ বলতে। প্রতিশোধ নেওয়া মানে ক্ষতি করা নয়। বিবেককেও নাড়িয়ে দেওয়া।

৩৪-৩৫ বছর ধরে কাজ করছেন চলচ্চিত্রে। নিজের অপরাধবোধ বা অনুশোচনা নিয়ে প্রসেনজিৎ বলেন, ভাল করে ভাবলে হাজার ঘটনা মনে পড়বে। অনেকে বলেন, আমি প্রচুর মানুষের ক্ষতি করেছি। অনেককে দাঁড়াতে দিইনি। তবে সজ্ঞানে এমন কিছু করিনি, যাতে কারও আর্থিক ক্ষতি হয়। অল্প বয়সের ইগো কাজ করেছে তখন। কিন্তু কারও ক্ষতি করিনি। তাই আপসও করিনি।

বর্তমান জীবন ও ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা নিয়ে প্রসেনজিৎ বলেন, ১০-১২ বছর আগে আমি দিনে দু’ঘণ্টা ঘুমোতাম। এটা একটা লম্বা সময় গিয়েছে। তখন শুটিং করতাম ১৮ ঘণ্টা। এখন চাপ আছে, কিন্তু দেখানোর কিছু নেই। তাই ছ’ঘণ্টা ঘুমাই। রাতে ফিরে দু’-আড়াই ঘণ্টা জিম করি। সাড়ে ১১টা নাগাদ একটা সিনেমা দেখবই। তার পর ঘুম। এখন আমার চাপ সম্মানটা ধরে রাখার। সূত্র: আনন্দবাজার

১৩ এপ্রিল, ২০১৮ ১১:৪৪:৫৪