আমিরের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ হচ্ছেন ফাতিমা
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
এই জন্যই কি কিছু দিন আগে সলমন খান বলেছিলেন, চেষ্টা করবেন আমির যাতে তৃতীয় বার বিয়ের পিঁড়িতে না বসেন! আমিরের গতিবিধি অন্তত সে দিকেই ইঙ্গিত করছে। যেটা হয়তো সলমনেরও টনক নড়িয়েছে। ‘দঙ্গল’-এর সময় থেকেই গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিল, আমিরের সঙ্গে ফাতিমা সানা শেখের সম্পর্ক নিয়ে। অবাক হচ্ছেন তো? হওয়ার কথাই বটে। সকলেই জানেন, আমির আর কিরণ রাওয়ের সম্পর্ক বেশ মজবুত। কিন্তু তাতেও তো ফাটল ধরতে পারে। দু’জনের ঘনিষ্ঠদের মত, এর একমাত্র কারণ ফাতিমার সঙ্গে আমিরের সাম্প্রতিক ঘনিষ্ঠতা। আমিরের ঠিক অর্ধেক বয়স ফাতিমার। তাতেই বা কী এসে গেল! ফিল্মি দুনিয়ায় সম্পর্ক কবেই বা বয়সের গণ্ডি মেনেছে!

ছবি শেষ হয়ে গেলে তারকারা যে যাঁর নিজের বৃত্তে ফিরে যান। আমির আর ফাতিমার ক্ষেত্রে সে সব হয়নি। ফাতিমা এবং ‘দঙ্গল’-এ ববিতা ফোগতের চরিত্র করা সানিয়া মলহোত্রকে নিজের প্রোডাকশন হাউসে অ্যাসিসট্যান্ট ডিরেক্টরের কাজ দেন। এতে দু’জনে আরও কিছুটা সময় কাছাকাছি থাকার সুযোগ পেয়ে যান। আমির বিভিন্ন অনুষ্ঠানে ফাতিমা আর সানিয়াকে নিয়ে যেতেন। সূত্রের খবর বলছে, সানিয়াকে নিয়ে যাওয়াটা লোকের চোখে ধুলো দেওয়ার জন্য।

আরও কয়েকটা উদাহরণ দিলে বিষয়টা স্পষ্ট হবে। ‘ঠগস অব হিন্দোস্তান’-এ ফাতিমার সুযোগ পাওয়ার পিছনেও আমিরই রয়েছেন বলে শোনা যাচ্ছে। ওই ছবিতে অমিতাভ বচ্চন আছেন।  কেরিয়ারের শুরুতেই আমির-অমিতাভের মতো তারকার সঙ্গে কাজ করাটা ভাগ্যের বটে! তার উপর ছবিটা আবার ‘যশ রাজ ফিল্মস’-এর। বলা যায়, আমিরি ছোঁয়ায় ফাতিমার ভাগ্যের জৌলুস ফিরছে। অবশ্য বছর পঁচিশের এই মেয়ে নিজেও কম গ্ল্যামারাস নন। নতুন উঠতি নায়িকাদের মধ্যে ফাতিমাই সবচেয়ে ফোটোজেনিক। আমির-ফাতিমা মুম্বইয়ে একসঙ্গে জিম করেন। এমনকী এও শোনা গিয়েছে, ‘দঙ্গল’-এর পর আমির যখন ওজন কমাতে আমেরিকা যান, সেখানে ফাতিমা তাঁর সঙ্গে গিয়েছিলেন।

কিরণও বিষয়টা জানেন এবং প্রাণপণে স্বামীকে আড়াল করার চেষ্টা করছেন। তাই ‘ঠগস...’এ ফাতিমা সুযোগ পাওয়ায় আমিরের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক নিয়ে যখন শোরগোল উঠেছিল, তখন কিরণ এগিয়ে এসে বিবৃতি দিয়েছিলেন। সেখানে বলেছিলেন, আদিত্য চোপড়া এবং পরিচালক বিজয় কৃষ্ণ আচার্য চেয়েছেন বলেই ফাতিমাকে নেওয়া হয়েছে। হঠাৎ করে আগ বাড়িয়ে কিরণ এই মন্তব্য করায় সন্দেহ আরও জোরালো হয়েছিল। প্রথমে শোনা গিয়েছিল ‘ঠগস...’এ ফাতিমা থাকবেন আমিরের বিপরীতে। সেটা হচ্ছে না। আমিরের বিপরীতে থাকছেন ক্যাটরিনা কাইফ। হয়তো বিতর্ক চাপা দেওয়ার জন্যই এটা করা হয়েছে।

আমির যে পরিচ্ছন্ন ইমেজ বজায় রাখার চেষ্টা করেন, সেটা দেখা যাচ্ছে খুবই ঠুনকো। প্রথম স্ত্রী রিনার সঙ্গে সম্পর্কে ছেদ ঘটিয়ে তিনি কিরণকে বিয়ে করেন। এখন আবার ফাতিমাকে নিয়ে মেতেছেন। রিনার সঙ্গে সম্পর্কে থাকার সময়েও একাধিক নায়িকার সঙ্গে আমিরের প্রেমের খবর শোনা যেত। ‘ডর’ ছবিতে আমিরের কাজ করার কথা ছিল। বিপরীতে দিব্যা ভারতী। এ দিকে জুহি চাওলার সঙ্গে আমিরের তখন তুমুল প্রেম চলছে। ‘যশ রাজ ফিল্মস’কে চাপ দিয়ে দিব্যার বদলে জুহিকে নেওয়ান তিনি। অবশ্য শেষ পর্যন্ত নিজেই বাদ পড়েন ছবি থেকে। ‘গুলাম’-এর সময় এক ব্রিটিশ সাংবাদিক জেসিকা হাইনের সঙ্গেও নায়কের প্রেমের কথা শোনা যায়। জেসিকা দাবি করেন, তাঁর সন্তানের বাবা আমির। যদিও নায়ক সে সব দাবি উড়িয়ে দেন। 

মিস্টার পারফেকশনিস্ট যে শুধু অভিনয়ের ক্ষেত্রেই পারফেকশন বজায় রাখেন, তা নয়। প্রেমের খবর লুকোতেও তিনি সিদ্ধহস্ত। তবে মাঝেমধ্যে ঝুলি থেকে বে়ড়াল বেরিয়ে পড়ে আর কী! 

 

 

 

 

 

২৯ মার্চ, ২০১৮ ০০:০৭:৩৯