আরাধ্যাকে নিয়ে খোঁটা, মহিলাকে কী জবাব দিলেন অভিষেক?
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট


বলিউডে বহুদিন পর হিটের মুখ দেখেছিলেন। তারপর নিজের পরিচিতি গড়ার চেষ্টা সবসময় করে গিয়েছেন। ঝুলিতে হিট যে নেই তাও নয়। ওদিকে আবার অন্যান্য ব্যবসাতেও হাত পাকিয়েছেন। এত কিছুর পরও বাবার নামের ওজন নিজের কাঁধ থেকে নামাতে পারেননি অভিষেক বচ্চন। তার উপরে আবার স্ত্রী বিশ্বসুন্দরী। মা জয়া বচ্চনও নিজের সময়ের ডাকসাইটে অভিনেত্রী। সবেরই ছায়া অভিষেকের জীবনে রয়েই গিয়েছে। যতদিন বেঁচে থাকবেন তাঁকে অমিতাভ-পুত্র হিসেবেই দেখছে গোটা দুনিয়া। কিংবা হয়তো ডাকবে ঐশ্বর্যের স্বামী বলে। এই সত্য একপ্রকার মেনেই চলেন অভিষেক। কিন্তু মেয়ের বিরুদ্ধে একটি শব্দও সহ্য করার পাত্র তিনি নন। সে কথা সোশ্যাল মিডিয়ায় ভালভাবেই বুঝিয়ে দিলেন জুনিয়র বচ্চন।

সম্প্রতি আরাধ্যার শাটারবাগদের ক্যামেরার সামনে বারবার আসা নিয়ে কটাক্ষ করে অভিষেককে টুইট করেছিলেন শেরিন পতাদিন নামের এক মহিলা। টুইটারে তিনি লেখেন, ‘আমি ভাবছি বিখ্যাত মায়ের সঙ্গে এভাবে ট্যুর করার জন্য কোন স্কুল অনুমতি দেয়? নাকি আপনারা বুদ্ধির চেয়ে সৌন্দর্যকেই বেশি প্রাধান্য দেন। দেমাকি মায়ের সঙ্গে সবসময় হাতে হাত দিয়ে ঘুরছে। সাধারণ ছোটবেলাটাই পাচ্ছে না।’

জবাব দিতে সময় নেননি জুনিয়ার বচ্চন। তাঁকে সম্মানের সঙ্গে ম্যাডাম সম্বোধন করে অভিষেক জানান, কোনও স্কুলই সপ্তাহান্তে খোলা থাকে না। আরাধ্যা প্রতিদিনই স্কুলে যায়। বরং তাঁর আরও একবার ভাবা উচিত টুইটের বানানগুলি শোধরানোর জন্য।

অভিষেকের এই উত্তরের পরও দমে যাননি ওই মহিলা। বানানের কথা জানানোর জন্য অভিষেককে ধন্যবাদ জানান। নিজের বক্তব্যের সাফাই দিয়ে জানান, অনেকেই একই মতামত পোষণ করেন, তবে একমাত্র তিনি প্রকাশ্যে বলার সাহস দেখিয়েছেন। সারাক্ষণ মায়ের হাত ধরে ছবি না দিয়ে সাধারণ বাচ্চা হিসেবে আরাধ্যার ছবি দেওয়ার পরামর্শ দেন তিনি। কিন্তু তাতে জুনিয়ার বচ্চন আর কোনও উত্তর দেওয়ার প্রয়োজন বোধ করেননি।



 


০৬ ডিসেম্বর, ২০১৭ ২০:২০:০১