৭ লাখেই শেষ শাকিব-অপুর সংসার!
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট


বছরের শুরু থেকে আলোচিত বিষয় শাকিব-অপুর সংসার কাহিনী। হঠাৎ টিভি লাইভে অপুর বিয়ে-সন্তান ফাঁস করে দেওয়া, এদিকে পরিস্থিতি সামাল দিতে শাকিবের বউ-সন্তান মেনে নেওয়া। এরপরের মাসগুলোতে দুজন-দুজনের মুখ দেখাদেখি বন্ধ। হুট করে আবারো তা জ্বলে ওঠে সন্তান রেখে অপুর ভারতে যাওয়া ইস্যুতে।

লাইভে স্ত্রী-সন্তানকে শাকিব মেনে নিলেও সে যে মন থেকে তাদের মেনে নেয়নি তেমন অসংখ্য ঘটনা চলতি বছর দেখেছে গণমাধ্যমকর্মীসহ সাধারণ ভক্তরা। প্রথম সারির একটি পত্রিকার প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আয়োজনে দুজনের আলাদা অংশগ্রহণ, এফডিসির নির্বাচনে দুপুরে অপু, রাতে শাকিবের প্রবেশ। সন্তানের জন্মদিন উদযাপনে দ্বিমত আয়োজন, পরে পাল্টাপাল্টি অভিযোগ ছুড়েছেন এই বিনোদন অভিনয়শিল্পীরা। তবে শেষঅবধি সেই শঙ্কাটি সত্যিই হলো। অপুর বাসায় তালাকনামা পাঠালেন শাকিব, সেটা আবার আইনজীবীর হাত দিয়ে। খবর আমাদের সময়'র।

নায়ক এখন বিদেশে। বিষয়গুলো নিয়ে উত্তাল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম। সেখানে শাকিব পক্ষের চেয়ে বিপক্ষ অর্থাৎ অপু সমর্থকের পরিমাণ বেশি দেখা গেল। তালাকের নোটিশে শাকিবের অভিযোগ, অপু তাদের সন্তানকে কাজের লোকের কাছে রেখে ‘কথিত’ বয়ফ্রেন্ডকে নিয়ে ভারতে বেড়াতে গিয়েছিলেন। তিনি জানিয়েছেনে, অপু তার কোনো নির্দেশ মেনে চলেন না। অপু বিশ্বাসের কথিত বয়ফ্রেন্ড! খটকা আসলে এখানেই।

আইনজীবী জানিয়েছেন, বিয়ের দেনমোহর বাবদ ৭ লাখ টাকা অপুকে পরিশোধ করবেন শাকিব খান। এছাড়া তিনি একমাত্র সন্তান আব্রাম খান জয়ের ভরণ-পোষণ করবেন।

এই জুটির ভক্তরা বলছেন, দীর্ঘ ১০ বছরের সম্পর্ক শাকিব শেষ করে দিচ্ছেন ৭ লাখ টাকার দেনমোহর শোধ দিয়ে। রঙিন পর্দায় দুর্দান্ত প্রেম-ভালবাসা দেখানো, দুঃসাধ্যকে সাধ্য করা তারকাদের ভালবাসা বোধহয় এমনই হয়! এরপরও কীভাবে তাদের আইডল মানবে ভক্ত-দর্শকরা?

উল্লেখ্য, শাকিব-অপুর বিয়ে হয় ২০০৮ সালের ১৮ এপ্রিল। কিন্তু নয় বছর বিয়ের খবর গোপন রাখেন এই তারকা জুটি। চলতি বছরের ১০ এপ্রিল একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে ছয় মাস বয়সী ছেলে আব্রামকে সঙ্গে নিয়ে হাজির হন অপু। এরপরই পর্দার বাইরে শুরু হয় কাহিনী। এবার কী তাহলে শেষ হচ্ছে!


০৫ ডিসেম্বর, ২০১৭ ১৫:১৪:৪০