'মেয়েদের শারীরিক নির্যাতনের কথা বলার কোনও জায়গা নেই'
অ+ অ-প্রিন্ট
বলিউড অভিনেত্রী কালকি কোচলিন।
বরাবরই অকপট কালকি কোচলিন৷ কোনও কথা স্পষ্ট করে বলতে তাঁর বাঁধে ন৷ দিন দুই আগে স্যানেটারি ন্যাপকিন নিয়ে বলেছিলেন তিনি৷ এবার বললেন শারীরিক নির্যাতন নিয়ে৷ কালকি জানিয়েছেন, “আমার মনে হয় না আমরা আমাদের দেশের মহিলাদের শারীরিক নির্যাতনের কথা বলার মতো জায়গা দিতে পারি৷ যখন তারা সফল ও বিখ্যাত হয়ে যায়, তখন তাদের কথা শোনা যায়৷ অনেক মহিলা আছে, যারা তাদের ক্যারিয়ারে অনেক স্ট্রাগল করে৷ তারা তাদের কথা বলার চেষ্টা করে৷ কিন্তু তাদের কথা শোনার কেউ নেই৷”

এর আগে স্যানিটারি ন্যাপকিনের উপর জিএসটি বসানো নিয়ে সরব হয়েছিলেন কালকি৷ নাম না করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে লক্ষ্য করে এই প্রশ্ন তুলেছেন তিনি। ‘আচ্ছে দিনে’-কে সরাসরি কটাক্ষ করে একটি ভিডিওতে অভিনেত্রী কালকি বলেন, “এটা (ঋতুস্রাব) সূর্যোদয় এবং সূর্যাস্তের মতো একটা স্বাভাবিক এবং প্রাকৃতিক বিষয়। এখনও কেন ঋতুস্রাবের মত একটি বিষয় নিয়ে ট্যাবু রয়েছে! এমনকি একে করের আওতায় ফেলা হল।”

রিপোর্ট বলছে, শুধুমাত্র আর্থিক প্রতিবন্ধকতার কারণে এখনও ভারতের প্রতি ১০জন মহিলার মধ্যে চারজনই স্যানিটারি ন্যাপকিন ব্যবহার করতে পারেন না। অথচ এমন এক দৈনন্দিন এবং আবশ্যক পণ্যের ওপর ১২ শতাংশ পর্যন্ত জিএসটি চাপিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। মোদী সরকারের এই নীতির বিরুদ্ধেই এই ভিডিওতে প্রশ্ন তুলেছেন কালকি কোচলিন।

২৮ অক্টোবর, ২০১৭ ১০:৩৭:৩৮