রিসিলার পেশা এবং লাইফস্টাইল নিয়ে অসুখী ছিলেন তার স্বামী
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম
অ+ অ-প্রিন্ট
র‌্যাম্প মডেল রিসিলা বিনতে ওয়াজির
স্বামীর সঙ্গে ভিডিও কল করে আত্মহত্যা করেছেন মডেল রিসিলা বিনতে ওয়াজির। সোমবার সকালে রাজধানীর বাড্ডা শাহজাদপুরের সুবাস্তু নজর ভ্যালী অ্যাপার্টমেন্টে এ ঘটনা ঘটে। পরে গুরুতর অবস্থায় রিসিলাকে উদ্ধার করে পরিবারের সদস্যরা গুলশানের ইউনাইটেড হাসপাতালের জরুরি বিভাগের নিয়ে গেলে চিকিৎসকেরা মৃত ঘোষণা করেন। 

‘আই অলওয়েজ কিপ চেঞ্জিং মি! নট দি পারসনালিটি, বাট ইন ফ্রেম’ লিখে গত শুক্রবার সকাল ৭টা ৩৭ মিনিটে ফেসবুকে নিজের একটি ছবি পোস্ট করেছিলেন রিসিলা । বাংলায় স্ট্যাটাসের অর্থ দাঁড়ায়, ‘আমি নিজে সর্বদাই পরিবর্তনের মধ্যে আছি- ব্যক্তিত্বের ক্ষেত্রে নয়, কাঠামোগতভাবে।’ সে কথাগুলোই সত্য করলেন তিনি। আত্মহননের পথ বেছে নিলেও শেষ পর্যন্ত ব্যক্তিত্বের সঙ্গে আপস করেননি।

রিসিলার ফেসবুক ঘেঁটে, বন্ধু-স্বজন ও পুলিশের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, সাংসারিক জীবনে সুখী ছিলেন না এই মডেল। বাইরে সব সময় হাস্যোজ্জ্বল থাকলেও পারিবারিকভাবে বিষাদে ডুবে থাকতেন তিনি। রিসিলার পেশা এবং লাইফস্টাইল নিয়ে অসুখী ছিলেন তার স্বামী বায়িং হাউস কর্মকর্তা ইমরুল হাসানও। কিন্তু ক্যারিয়ারের বিষয়ে এক চুলও ছাড় দেওয়ার পাত্রী ছিলেন না রিসিলা। এ ছাড়া রিসিলা নিয়মিত ইয়াবা সেবন করতেন বলে অভিযোগ রয়েছে। এ নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে প্রায়ই ঝগড়া হতো। শেষ পর্যন্ত স্বামীর ওপর রাগ-অভিমান আর ধরে রাখতে পারেননি তিনি। সিদ্ধান্ত নেন স্বামীকে সামনে রেখেই পরপারে পাড়ি দেবেন। অবশেষে গত সোমবার দুপুরে স্বামীকে ভিডিওকলে রেখে গুলশানের সুবাস্তু টাওয়ারে নিজ ফ্ল্যাটে ফ্যানের সঙ্গে ওড়না দিয়ে গলায় ফাঁস নেন রিসিলা। আত্মহত্যার ঘটনা সোমবার ঘটলেও তিনি কঠিন এই সিদ্ধান্তটি নিয়েছিলেন গত শনিবার গভীর রাতে। সেদিন রাত ২টা ৪ মিনিটে রিসিলা ফেসবুকের নিজ প্রোফাইলে সম্পূর্ণ কালো রঙের ফ্রেমে একটি ছবি আপলোড করেন। এর ২ মিনিট পর তার ফেসবুক ফ্রেন্ড অলড্রিন বিনু বিনুস কমেন্ট বক্সে লিখেন ‘কালা হইল ক্যামনে???’ ২ মিনিট পর বন্ধু সরন রহমান লিখেন ‘হোয়াট হেপেন্ড ডিয়ার?’। কিন্তু কোনো উত্তর দেননি রিসিলা। নানা প্রশ্নবাণে জর্জরিত হয়ে পরে নিজের সুন্দর একটি ছবি ফেসবুকে আপলোড করেন তিনি। সেটাই ছিল তার শেষ ছবি। সোমবার সকালে স্বামী ইমরুল হাসান অফিসের কাজে নরসিংদী গেলে সাড়ে ৩ বছরের একমাত্র মেয়েকে বোনের বাসায় রেখে আসেন রিসিলা। এরপর সুবাস্তুর ফ্ল্যাটে এসে ঠাণ্ডা মাথায় মোবাইল ফোনে হোয়াটসঅ্যাপে ভিডিওকল দেন স্বামীকে। এ সময় চরম বাগ্বিতণ্ডার একপর্যায়ে স্বামীকে ভিডিওকলে রেখেই বলেন, দেখ, আমি কী করি। এ সময় হাতে ওড়না নিয়ে চেয়ারে দাঁড়িয়ে ফ্যানের সঙ্গে ওড়না বাঁধেন। এরপর নিজের গলায় ফাঁস দিয়ে চেয়ার ধাক্কা দিয়ে ফেলে ঝুলে পড়েন। পুরো দৃশ্য তখনো অবলোকন করছিলেন স্বামী ইমরুল। তার মাধ্যমে খবর পেয়ে স্বজনরা ছুটে গেলেও শেষ রক্ষা হয়নি। এর আগেই না ফেরার দেশে চলে যান এই র‌্যাম্প মডেল।

দীর্ঘদিন থেকেই মডেলিং করে আসছিলেন রিসিলা। মডেল হিসেবে বেশ দ্রুত নিজের ক্যারিয়ার এগিয়ে নিচ্ছিলেন তিনি। র্যাম্প মডেলিংয়ের পাশাপাশি বেশকিছু টিভি নাটকেও অভিনয় করেন রিসিলা। তিনি দেশের বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান 'স্বপ্ন'র সাবেক শুভেচ্ছাদূত ছিলেন। 

০২ আগস্ট, ২০১৭ ০৬:০২:২৫