সঞ্চয়পত্রে সুদের হার কমতে পারে
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম
অ+ অ-প্রিন্ট
অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত


অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত সঞ্চয়পত্রের সুদের হার কমানো হতে পারে বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন । তিনি বলেছেন, সব সময় সঞ্চয়পত্রের সুদের হার আকর্ষণীয় রাখা হয়। তবে বর্তমান বাজারে ঋণের সুদের চেয়ে সঞ্চয়পত্রের সুদের হারের মধ্যে পার্থক্য অনেক বেশি হয়ে গেছে। এটা রিভিউ করা উচিত। সোমবার অর্থ মন্ত্রণালয়ে ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজ-ডিসিসিআইয়ের একটি প্রতিনিধি দলের সঙ্গে প্রাক-বাজেট আলোচনায় তিনি এসব কথা বলেন।

অর্থমন্ত্রী আরও বলেন, সঞ্চয়পত্র সামাজিক নিরাপত্তা হিসেবে কাজ করে। সঞ্চয়পত্রে সাধারণ মানুষের বিনিয়োগের বিষয়টিও ভাবা হচ্ছে।

এসময় তিনি দাবি করেন- ব্যাংকিং খাতের অবস্থা যতটা খারাপ বলা হচ্ছে ঠিক তত খারাপ নয়। তবে ব্যাংকিং খাতে খেলাপি ঋণের পরিমাণটা একটু বেশি। এক্ষেত্রে সরকারি ব্যাংকগুলোর অবস্থা একটু বেশি খারাপ। তবে তাদের সরকারের প্রয়োজনে অনেক ঝুঁকিপূর্ণ জায়গায় বিনিয়োগ করতে হবে। ব্যাংক সুদহার নিয়ে মুহিত বলেন, প্রধানমন্ত্রীও চান সিঙ্গেল ডিজিট সুদে ঋণ। এটা বাস্তবায়ন করতে আমরা চেষ্টা করছি।

বর্তমানে সরকারের প্রথম দিকেই সরকারি চাকরিজীবীদের বেতন বাড়ানো হয়েছিল। তবে রাতারাতি দুর্নীতি কমানো সম্ভব নয়। এখনো দুর্নীতি রয়েছে। তবে আশা করছি আগামী ৫ থেকে ১০ বছরের মধ্যে দুর্নীতি অনেকাংশেই কমে যাবে বলে জানান মুহিত।

এসময় অর্থমন্ত্রী আরও বলেন, আগামী বাজেটের আকার হবে ৪ লাখ ৬০ হাজার কোটি টাকার। এতে শিক্ষা, স্বাস্থ্য, জ্বালানী, বিদ্যুৎ ও পরিবহন খাতকে গুরুত্ব দেয়া হবে।

বর্তমানে দেশে রেকর্ড বিদ্যুৎ উৎপাদনে প্রশংসা করে তিনি বলেন, সরকারের চলতি মেয়াদের মধ্যেই বিদ্যুৎ উৎপাদন সক্ষমতা ১৫ হাজার থেকে ১৮ হাজার মেগাওয়াটে উন্নীত হবে।





 


৩০ এপ্রিল, ২০১৮ ২০:০৭:৫৪