ট্রাম্পের জয়ে শেয়ারবাজার ও মুদ্রাবাজারে বড় ধরনের দরপতন
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পের মার্কিন মুল্লুক জয়ে অনেক তাবড় ধনকুবের মাথায় হাত দিয়েছেন। এক দিনেই এসব ধনকুবের খুইয়েছেন ৪১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। হিসেবটা যেহেতু ডলারে, তাই অনেকের কাছেই গোলমেলে লাগতে পারে। চলুন টাকার হিসেবটা মেলানো যাক।

ট্রাম্পের জয়ের খবর চাউর হবার সঙ্গে সঙ্গে বিশ্বব্যাপী শেয়ারবাজার ও মুদ্রাবাজারে বড় ধরনের দরপতনের ঘটনা ঘটে। এই পতনেই চোখে সর্ষে ফুল দেখছেন এসব তুখোড় ধনকুবেররা। টাকার হিসেবে এদিন তাদের লোকসান হয়েছে ৩ লাখ ২৮ হাজার কোটি টাকা (১ ডলার =৮০ টাকা ধরে)।

শীর্ষ ধনীদের সম্পদ নিয়ে ব্লুমবার্গের ইনডেক্স বিশ্লেষণে এমন তথ্যই মিলেছে।

ট্রাম্পের বিজয়ের পর বুধবার সকাল ১০টায় (সে দেশের স্থানীয় সময়) নিউইয়র্ক স্টক এক্সচেঞ্জের এস অ্যান্ড পি সূচকের পতন হয়েছে ১.১ শতাংশ। নিউ ইয়র্কের রিয়েল এস্টেট ব্যবসায়ী ট্রাম্প আমেরিকার ৪৫তম প্রেসিডেন্ট হতে যাচ্ছেন-এমন সংবাদে সারা বিশ্বের শেয়ার পরিস্থিতি টালমাটাল হয়ে উঠে।

কারণ দানের পাশাটা তো উল্টে গেছে। হিসেব কেন উল্টাবে না!

ডেমোক্রেট প্রার্থী হিলারি ক্লিনটন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জয় লাভ করবেন এমন প্রত্যাশা ছিল বিনিয়োগকারীদের। এ কারণে আগের সপ্তাহে শেয়ারবাজার ছিল চাঙ্গা। ফলে বিশ্বের শীর্ষ ধনীদের সম্পদ বেড়েছিল ৫৭ বিলিয়ন ডলার। কিন্তু নির্বাচনে হিলারির পরাজয়ে সে সম্পদ কমে গিয়ে উল্টো তাদের ৪১ বিলিয়ন ডলার লোকসান হয়েছে।

হিলারির পরাজয়ে সবচেয়ে বেশি সম্পদ হারিয়েছেন মেক্সিকোর শীর্ষ ধনী ব্যক্তি কার্লোস স্লিম। তার সম্পদ কমেছে ৫.১ বিলিয়ন ডলার। কার্লোস স্লিম বিশ্বের পঞ্চম শীর্ষ ধনী ব্যক্তি। ট্রাম্পের জয়ের খবরে ডলারের বিপরীতে মেক্সিকো মুদ্রা পেসোর ১২ শতাংশ দরপতন ঘটে। এতে তার সম্পদের পরিমাণ ৯.২ শতাংশ কমে গেছে।

আর মেক্সিকোর শীর্ষ ১০ ধনী ব্যক্তির সম্মিলিতভাবে সম্পদ কমেছে ৬.৫ বিলিয়ন ডলার। স্লিমের পর মেক্সিকোর সবচেয়ে বেশি সম্পদ হারিয়েছেন ইভা গোন্ডা রিভেরা। দেশটির চতুর্থ ধনী এ ব্যক্তি লোকসান গুনেছেন ৪৮৭ মিলিয়ন ডলার। দেশটির ৫ম শীর্ষ ধনী ব্যক্তি লরেঞ্জো সার্ভিজি সেন্ড্রার লোকসানের পরিমাণ ৩৯৭ মিলিয়ন ডলার।

১০ নভেম্বর, ২০১৬ ১৭:০৯:১৩