ব্রিটেনে ব্রেক্সিট প্রভাব : দাম কমছে বাড়ির, বিক্রি বাড়ছে ঘড়ির
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
চলতি বছরের ২৩ জুন ব্রেক্সিট ভোটের পর ব্রিটেনের অর্থনৈতিক গতিবিধিতে অনেক কিছুরই পালাবদল ঘটছে। ব্রেক্সিটের প্রভাবে একদিকে লন্ডনে বাড়ির দাম কমার আশঙ্কা দেখা দিলেও, অন্যদিকে বিক্রি বেড়েছে বিলাসবহুল ঘড়ির। খবর ব্লুমবার্গ। যুক্তরাজ্যের নেতৃস্থানীয় অর্থনৈতিক উপদেষ্টা প্রতিষ্ঠান সেন্টার ফর ইকোনমিকস অ্যান্ড বিজনেস রিসার্চ (সিইবিআর) জানায়, ব্রেক্সিট অনিশ্চয়তার মধ্যে আগামী বছর লন্ডনের সম্পত্তির মূল্য কমে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। বিশেষত রাজধানীর অধিক দামি আবাসন বাজার সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। আগামী বছর আবাসন বাজারে ৫ দশমিক ৬ শতাংশ পতনের আশঙ্কা করছে সিইবিআর। তবে চলতি বছর লন্ডনের সম্পত্তির অর্থমূল্য বৃদ্ধি ত্বরান্বিত হয়ে ৬ দশমিক ৯ শতাংশে দাঁড়াবে বলে আশা করা হচ্ছে। খবর বনিকবার্তা'র।

সিইবিআরের অর্থনীতিবিদ ড্যানিয়ের নিউফিল্ড বলেন, ব্রেক্সিট নিয়ে অস্থিরতা ও অনিশ্চয়তা প্রকাশ পেতে শুরু করেছে। ২০১৬ সালের চতুর্থ প্রান্তিকে যুক্তরাজ্যজুড়ে আবাসন মূল্য প্রবৃদ্ধি মন্থর হয়ে পড়তে পারে, যা আগামী বছরও অব্যাহত থাকবে। এছাড়া ব্রেক্সিট গণভোটের আগেই কর ব্যবস্থার পরিবর্তনের ফলে যুক্তরাজ্যের আবাসন বাজার ঝঞ্ঝাক্ষুব্ধ পরিস্থিতির মধ্যে রয়েছে। এ অবস্থায় বিনিয়োগকারীরা সম্ভাব্য কঠোর ব্রেক্সিটের আশঙ্কায় ভীত হয়ে পড়েছে। দ্রুতগতির মূল্যস্ফীতি, ক্রমবর্ধমান বেকারত্ব ও শ্লথ ব্যবসায় বিনিয়োগ সবকিছু আবাসন মূল্যের প্রতিকূলে কাজ করছে।

এমন পরিস্থিতিতে অভিবাসন সংকোচন এবং একক বাজার থেকে বাদ পড়ে গেলে আন্তর্জাতিক ক্রেতার সংখ্যাও কমে যাবে বলে জানিয়েছে সিইবিআর।

বাড়ির দাম কমতে থাকলেও ব্রেক্সিট প্রভাবে ইংল্যান্ডের বিলাসবহুল ঘড়ির বিক্রি বেড়েছে। সাম্প্রতিক বছরে রফতানি কমে যাওয়ায় গুটিয়ে যেতে শুরু করেছে ঘড়ি বাজারের একচেটিয়া রাজত্বকারী সুইস ঘড়ি নির্মাতারা। এমন সময় ইংল্যান্ডের হ্যানলি-অন-টেমসে অবস্থিত ছোট্ট একটি ঘড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ব্রেমন্ট ওয়াচ কোম্পানি স্রোতের বিপরীতে এগিয়ে চলেছে। ব্রেক্সিট প্রভাবে বেড়ে যাওয়া পাউন্ডের মান কোম্পানিটির জন্য আশীর্বাদ হয়ে উঠেছে, যার ফলে জুনের পর ব্রেমন্ট ঘড়ির বিক্রি বৃদ্ধি পেয়েছে।

৩০ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:২৪:২৫