সুইফটের মাধ্যমে সোনালী ব্যাংকের আড়াই লাখ ডলার চুরি
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম
অ+ অ-প্রিন্ট
বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভের অর্থ চুরির ঘটনার সঙ্গে ২০১৩ সালে সোনালী ব্যাংক থেকে আড়াই লাখ ডলার চুরির ঘটনার কোনও যোগসূত্র আছে কিনা তার সন্ধানে নেমেছে পুলিশ। বুধবার বাংলাদেশের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারীবাহিনীর একজন জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তার বরাত দিয়ে বার্তাসংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে একথা বলা হয়।

সোনালী ব্যাংক বলছে, ওই অর্থ চুরিতেও আর্থিক লেনদেনের বার্তা আদান-প্রদানকারী আন্তর্জাতিক মাধ্যম বা সুইফট কোড ব্যবহার করা হয়েছিল। ওই সময় বিষয়টি সুইফটকে জানানোও হয়েছিল।

সোনালী ব্যাংকের জ্যেষ্ঠ এক কর্মকর্তা বলেন,  ২০১৩ সালে সোনালী ব্যাংকের অর্থ চুরি হওয়ার কায়দায়ই বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভের অর্থ চুরি হয়েছে। ওইসময়েও সুইফট কোড ব্যবহার করে অর্থ পরিশোধের ভুয়া অনুরোধ জানানো হয়েছিল।

সোনালী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রদীপ কুমার দত্ত রয়টার্সকে বলেন, হামলাকারীরা ছিল একটি বড় গোষ্ঠী। ওই সময়ের কোনও অর্থ উদ্ধার করা যায়নি।

সোনালী ব্যাংকের প্রযুক্তি ব্যবস্থাপনার এক কর্মকর্তারা বরাত দিয়ে রয়টার্স বলছে,  হ্যাকাররা ব্যাংকের কোনো একটি কম্পিউটারে সফটঅয়্যার বসিয়ে পাসওয়ার্ড চুরি করে। পরে সেই পাসওয়ার্ড ব্যবহার করেই ভুয়া সুইফট মেসেজ পাঠানো হয়।

এ ঘটনাটি জানাজানি হওয়ার পর ওই ব্যাংকের দুই কর্মীকে গ্রেফতার করলেও পরে তাদের ছেড়ে দেওয়া হয় বলে জানিয়েছে রয়টার্স।

২৬ মে, ২০১৬ ১১:৪২:৫৮