ঘুম থেকে উঠে দেখি আমি বিবস্ত্র, আমার পাশে ঝন্টু: নারী ইউপি সদস্য
রাঙ্গামাটি প্রতিনিধি
অ+ অ-প্রিন্ট
রাঙ্গামাটিতে অন্তঃসত্ত্বা এক নারী ইউপি সদস্যকে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে চাচাতো ভাই ঝন্টু চাকমার বিরুদ্ধে। শুক্রবার (২৬ এপ্রিল) বিকেলে ঝন্টু চাকমাকে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ। গ্রেফতার ঝন্টু চাকমার বাড়ি লংগদু উপজেলার ছোট কাট্টলি এলাকায় বলে জানা গেছে।

ওই নারী ইউপি সদস্য বলেন, ২৪ এপ্রিল (বুধবার) আমি লংগদু থেকে রাঙ্গামাটি আসি। ওইদিন আমার চাচাতো ভাই ঝন্টু চাকমা আমাকে ফোন দিয়ে বলে গুরুত্বপূর্ণ কথা আছে। ভাই হওয়ার কারণে তাকে বিশ্বাস করে রিজার্ভ বাজারের গ্রিন ক্যাসেল হোটেলে তার রুমে যাই। সে আমাকে কোকাকোলার সঙ্গে ঘুমের ওষুধ মিশিয়ে খাওয়ানোর পর ধর্ষণের চেষ্টা করে। আমি তার কাছে হাত-পা ধরে মাফ চাওয়ার কিছুক্ষণ পর ঘুমিয়ে পড়ি। পরদিন সকালে ঘুম থেকে উঠে দেখি আমি বিবস্ত্র, আমার পাশে ঝন্টু। আমি বুঝতে পারি রাতে সে আমাকে একাধিকবার ধর্ষণ করেছে। পরে আমি আমার পরিবারের সঙ্গে কথা বলে শুক্রবার তার বিরুদ্ধে কোতোয়ালি থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করি।

বিষয়টি নিশ্চিত করে কোতোয়ালি থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর জাহিদুল আলম রনি জানান, নারী ইউপি সদস্যের অভিযোগের ভিত্তিতে ঝন্টু চাকমাকে গ্রেফতার করে আজ বিকেলে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট জাহেদ আহম্মদের আদালতে তোলা হয়। তিনি ঝন্টু চাকমাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন এবং আগামী ১২ মে পরবর্তী হাজিরার তারিখ ঠিক করেন।

২৬ এপ্রিল, ২০১৯ ২২:৩৬:১৪