মোবাইলে 'প্রেম', দেখা করতে এসে দেখেন প্রেমিকা পুলিশ
ঝিনাইদহ প্রতিনিধি
অ+ অ-প্রিন্ট
ঝিনাইদহের হরিণাকুন্ডু উপজেলার আসাদুল (৪২) নামে হত্যা মামলার এক আসামিকে গ্রেপ্তার করতে বিভিন্ন অভিযান চালিয়েও ব্যর্থ হয়েছে পুলিশ। অবশেষে এক নারী কনস্টেবলের প্রেমের ফাঁদে ফেলে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। বৃহস্পতিবার উপজেলার ভাইট বাজারে ওই নারী কনস্টেবলের সঙ্গে দেখা করতে আসলে পুলিশের হাতে ধরা পড়ে আসাদুল। এরপর তাকে গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ঝিনাইদহের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এএসপি) তারেক আল মেহেদি। তিনি বলেন, ‘নারী কনস্টেবলকে দিয়ে প্রেমের ফাঁদে ফেলে আসাদুলের অবস্থান নিশ্চিত হয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।’

এএসপি আরও বলেন, গত সেপ্টেম্বর মাসে হরিণাকুন্ডু উপজেলার মানদিয়া সরকারি ক্যানেলের পাশে তোয়াজ উদ্দিন মন্ডল (৬০) নামের এক বৃদ্ধকে গলা কেটে হত্যা করা হয়। এ মামলায় নিহতের ছেলে বাদী হয়ে হরিণাকুন্ডু উপজেলার কালাপাড়িয়া গ্রামের বাসিন্দা আসাদুলকে প্রধান আসামি করে পাঁচজনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেন।

তিনি বলেন, বিভিন্নভাবে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা যায়নি। তাই আমি ভিন্ন উপায়ে তাকে গ্রেপ্তার করার জন্য পদক্ষেপ গ্রহণ করি। এরই পরিপ্রেক্ষিতে এক নারী কনস্টেবল নিজের পরিচয় লুকিয়ে কলেজছাত্রী পরিচয় দিয়ে তার সঙ্গে কথা বলা শুরু করে। একপর্যায়ে সাজানো এই প্রেমের ফাঁদে ধরা দেয় আসাদুল।

এ মামলার অন্যান্য আসামিকে আরও আগেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে হয়েছে বলেও জানান এএসপি তারেক আল মেহেদি।

২৯ মার্চ, ২০১৯ ১০:১৪:১৩