খুলনার ৯ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে আওয়ামী লীগ
মাওলা বকস, খুলনা
অ+ অ-প্রিন্ট
খুলনার নয়টি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত নয় জন প্রার্থীর বিপরীতে বিদ্রোহী প্রার্থী হয়েছেন ২৫ জন। সোমবার দিনভর তারা নিজেদের অনুসারীদের নিয়ে মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন। খুলনার বটিয়াঘাটা উপজেলা ছাড়া আর সব উপজেলাতেই রয়েছে বিদ্রোহী প্রার্থী। ফলে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রাপ্ত অনেকেই রয়েছেন শঙ্কায়। সোমবার মনোনয়নপত্র জমাদেয়ার শেষ দিনে খুলনার নয়টি উপজেলায় মোট ৩৪ জন চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন জমা দিয়েছেন। জেলা নির্বাচন অফিসার এম. মাজহারুল ইসলাম জানান, খুলনার বটিয়াঘাটা উপজেলাতেই শুধুমাত্র একজন প্রার্থী উপজেলা চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন জমা দিয়েছেন। তিনি হলেন বর্তমান চেয়ারম্যান আশরাফুল আলম খান (আওয়ামী লীগ মনোনীত)। 

দাকোপ উপজেলায় মনোনয়ন জমা দিয়েছেন মুনসুর আলী খান (আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী), শেখ আবুল হোসেন (আওয়ামী লীগ মনোনীত) এবং ওয়ার্কার্স পার্টির গৌরাঙ্গ প্রসাদ রায়। ডুমুরিয়া উপজেলায় মনোনয়ন জমা দিয়েছেন মোঃ মোস্তফা সরোয়ার (আওয়ামী লীগ মনোনীত), মাহবুর রহমান (স্বতন্ত্র), শাহনেওয়াজ হোসেন জোয়াদ্দার (আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী) ও সেলিম আকতার স্বপন ওয়ার্কার্স পার্টি।ফুলতলা উপজেলায় মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন বর্তমান চেয়ারম্যান শেখ আকরাম হোসেন (আওয়ামীলীগ মনোনীত), শেখ আবিদ হোসেন (আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী), হাসনাত রিজভী মার্শাল (আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী) ও শেখ জাহাঙ্গীর হোসেন।পাইকগাছা উপজেলায় গাজী মোহাম্মদ আলী (আওয়ামী লীগ মনোনীত), সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান রশিদুজ্জামান মোড়ল (আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী), শেখ মনিরুল ইসলাম (আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী) ও শেখ আবুল কালাম (আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী)।

কয়রা উপজেলায় মনোনয়ন জমা দিয়েছেন জিএম মহসিন রেজা(আওয়ামী লীগ মনোনীত), এসএম শফিকুল ইসলাম (আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী) ও আব্দুল্লাহ আল মামুন (আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী)।রূপসা উপজেলায় মনোনয়ন জমা দিয়েছেন বর্তমান চেয়ারম্যান কামাল উদ্দিন বাদশা (আওয়ামী লীগ মনোনীত), সাবেক চেয়ারম্যান শেখ আলী আকবর (আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী), ওলিয়ার রহমান মাষ্টার(আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী), জাতীয় পার্টিার ফিরোজ মামুন, ও শওকত আলী (স্বতন্ত্র)।

তেরখাদা উপজেলায় মনোনয়ন জমা দিয়েছেন বর্তমান চেয়ারম্যান শেখ সরফুদ্দিন বিশ্বাস (আওয়ামী লীগ মনোনীত), জেলা আওয়ামী লীগের নেতা এডভোকেট মোস্তাফিজুর রহমান কালু (আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী), শেখ শহিদুল ইসলাম (আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী), বাদশা মল্লিক (আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী)।

দিঘলিয়া উপজেলায় মনোনয়ন জমা দিয়েছেন বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান খান নজরুল ইসলাম (আওয়ামী লীগ মনোনীত), আওয়ামী লীগ নেতা শেখ মারুফুল ইসলাম (আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী) ও মল্লিক মহিউদ্দিন (আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী)।

বিদ্রোহীদের বিষয়ে খুলনা জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট সুজিত অধিকারী বলেন, কেন্দ্র থেকেই বিষয়টি ওপেন করে দেয়া হয়েছে। কারণ ভোটের অধিকার সবারই রয়েছে। আমরা চাই সুষ্ঠুভাবে নির্বাচন সম্পন্ন হোক। আগামী ৬ মার্চ মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন।

 

০৫ মার্চ, ২০১৯ ১০:৩৬:২৮