বীরগঞ্জে অসহায় তরুণ-তরুণীদের যৌতুকবিহীন বিয়ে
খায়রুন নাহার বহ্নি, বীরগঞ্জ (দিনাজপুর)
অ+ অ-প্রিন্ট
বীরগঞ্জে গত সোমবার প্রত্যন্ত পল্লী অঞ্চলের কুঁড়ি জোড়া অসহায় তরুণ-তরুণীদের যৌতুক বিহীন বিবাহ দেওয়া হয়েছে।  উপজেলার বটতলী ফৌজিয়া মদিনাতুল উলম মাদ্রাসা মাঠ প্রাঙ্গণে বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামা ও ইসলাহুল মুসলিমীন পরিষদ বাংলাদেশের চেয়ারম্যান শাইখুল হাদিস আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ-এর তত্ত্বাবধানে যৌতুক বিহীন কুঁড়ি জোড়া তরুন তরুনীদের বিবাহ দেওয়া হয়। সকালের ভালবাসায় স্নিগ্ধ  আনন্দ ঘন মুহুর্তে মানুষ ভেঙে পড়েছিল ওই যৌতুক বিহীন বিবাহ দেখার জন্য। বিয়ের এই সুন্দর আয়োজনে প্রধান অতিথি ছিলেন জাতীয় সংসদ সদস্য মনোরঞ্জন শীল গোপাল।

আয়োজকরা জানান, এ দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের অসহায় তরুণ-তরুণীদের মধ্যে যারা খরচের ভয়ে বৈবাহিক জীবন গঠন করতে পারেন না। তাদের জন্যই যৌতুকবিহীন বিবাহের এই উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়। আর ইসলাহুল মুসলিমীন পরিষদ বাংলাদেশের দিনাজপুর প্রতিনিধি মাওলানা আইয়ুব আনসারী এই কুঁড়ি জোড়া নারী-পুরুষের বিয়ের সব তদারকি করেন। অনুষ্ঠানে উপস্থিত প্রধান অতিথি জাতীয় সংসদ সদস্য মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি নতুন বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ তরুণ তরুণীদের সামাজিক জীবনে সর্বত্র সাফল্য কামনা করেন।

তিনি তাদেরকে যৌতুকের বিরুদ্ধে আন্দোলন গড়ে তোলার আহ্বান জানান। তিনি মনে করেন, এ জাতীয় উদ্যোগে আমাদের সমাজ সুন্দরের পথে হাঁটবে। সমাজ কুসংস্কার মুক্ত হবে। কেবল বিয়ের আয়োজন নয়, অতিথিদের কথামালা শোনার ব্যবস্থার পাশাপাশি বর কনেকে দেয়া হয়েছে সেলাই মেশিন, ছাগল, লেপ-তোশক, হান্ডি পাতিলসহ আরও প্রয়োজনীয় আসবাবপত্র নতুন দম্পতিদের হাতে তুলে দেন এমপি গোপাল। অনুষ্ঠানে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক মো. নুর ইসলাম ও যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মো. শামীম ফিরোজ আলম সহস্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গও উপস্থিত ছিলেন। এদিনে ভিন্ন অনুষ্ঠানে উপজেলার সাতোর ইউনিয়ন, ভোগনগর ইউনিয়ন ও শিবরামপুর ইউনিয়নের প্রাননগর, চৌপুকুরিয়া, সাতোর, পালানুগাও, চকপাতলা, সাহাডুবি, শিবরামপুর ও মাঝবোয়াল গ্রামে ৩২৯টি বাড়িতে বিদ্যুতায়নের উদ্বোধন করেন জাতীয় সংসদ সদস্য মনোরঞ্জন শীল গোপাল।

২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০৪:২০