সুন্দরগঞ্জে ব্রিজনির্মাণে জেলা পরিষদের সহযোগিতার আশ্বাস
আবু বক্কর সিদ্দিক, গাইবান্ধা
অ+ অ-প্রিন্ট
গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ পৌরসভার অভ্যন্তরে রামডাকুয়া দিয়ে প্রবাহিত তিস্তার শাখা নদীর উপর কাঠের ব্রিজ নির্মাণের ক্ষেত্রে জেলা পরিষদের পক্ষ থেকে সবধরণের সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করে গাইবান্ধা জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আতাউর রহমান সরকার আতা বলেছেন, আসন্ন বর্ষা মৌসূমে সুন্দরগঞ্জ উপজেলার সঙ্গে কুড়িগ্রাম জেলার সার্বিক যোগাযোগে জনসাধারণের দুর্ভোগ লাঘবের জন্য কাঠেরব্রিজ নির্মাণে ১ লাখ টাকা, ১টি নৌকা ও ভবিষ্যতে একটি ব্রিজ নির্মাণে সবধরণের সহযোগিতা করা হবে। মঙ্গলবার দুপুরে নদীপাড়ে কাঠেরব্রিজ নির্মাণ কাজের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা পরিষদ চেযারম্যান কাঠেরব্রিজ নির্মাণের উদ্যোক্তা বেলকা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মজিবর রহমান মজিসহ স্থানীয় জনসাধরণের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে নিজের প্রতি ঈঙ্গিত করে তিনি আরো বলেন, এই রামডাকুয়ায় কাঠেরব্রিজ নির্মাণে এলাকাবাসীর আগে আমাকেই এই উদ্যোগটা গ্রহণ করা দরকার ছিল। বেলকা ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান জহুরুল হক সরদারের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, সুন্দরগঞ্জ পৌর মেয়র আব্দুল্লাহ-আল-মামুন, বেলকা ইউপি চেয়ারম্যান ইব্রাহীম খলিলুল্লাহ্, থানা অফিসার ইনচার্জ- এসএম আব্দুস সোবহান প্রমুখ।

উল্লেখ্য, রামডকুয়া খেঁয়াঘাটে এই ব্রিজটি নির্মিত হলে বেলকা ইউনিয়নের, পঞ্চানন, কিশামত সদর, বেলকা নবাবগঞ্জ, তালুক বেলকা, বেকরির চর, রামডাকুয়া জিগাবাড়ি চর, রহমতের চর, বিরোহীমের চর, লাটশালার চর, হরিপুর, কাশিম বাজার, কুড়িগ্রাম জেলা সদর ও জেলার উলিপুর, চিলমারী, রাজিবপুর, রৌমারী, ফুলবাড়ির বিভিন্ন ইউনিয়ন ও গ্রামের সঙ্গে প্রত্যহ শিক্ষা, চিকিৎসা, ব্যবসা-বানিজ্য, হাট-বাজারসহ সার্বিক যোগাযোগে বছরের সব ঋতুতেই কুড়িগ্রাম জেলার বেশ ক'টি উপজেলার সঙ্গে সুন্দরগঞ্জ উপজেলাসহ গাইবান্ধা জেলার যোগাযোগ ব্যবস্থা সুদৃঢ় হবে।

 

১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ২৩:৫৯:২৬