শ্লীলতাহানির অভিযোগে আটক যুবক, ধরে এনে ছাত্রীর সঙ্গে বিয়ে
পাথরঘাটা (বরগুনা) প্রতিনিধি
অ+ অ-প্রিন্ট


কলেজের ভবনের একটি কক্ষে নিয়ে ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে ওই শিক্ষার্থীকে মারধর করার অভিযোগে আটক করা হয়েছিল পার্থ রায় নামের এক যুবককে। পরে ওই যুবকের সঙ্গেই সেই ছাত্রীর বিয়ে হয়েছে। গতকাল সোমবার রাতে বরগুনার পাথরঘাটা কেন্দ্রীয় কালি মন্দিরে উপজেলার হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি অরুণ কর্মকারের নেতৃত্বে এ বিয়ে অনুষ্ঠিত হয়।     

গতকাল সকাল ১০টার দিকে পাথরঘাটা কলেজের অনার্স ভবনের একটি কক্ষে ওই ছাত্রীকে নিয়ে শ্লীলতাহানি ও মারধর করার অভিযোগে পার্থ রায়কে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে কলেজ কর্তৃপক্ষ। পরে মারধর ও শ্লীলতাহানি বিষয় উল্লেখ করে ওই ছাত্রী কলেজে লিখিত অভিযোগ দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনা স্থল থেকে ওই ছাত্রী ও যুবককে থানায় নিয়ে যায়। পরে স্থানীয় পর্যায় অভিভাবকদের নিয়ে বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা করা হয়।

হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি অরুণ কর্মকার জানান, ওই দুজনে মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। উভয় পরিবারের সিদ্ধান্ত নিয়ে তাদের দুজনকে পাথরঘাটা থানা থেকে নিয়ে এসে বিয়ে দেওয়া হয়েছে। এ বিষয়ে পাথরঘাটা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হানিফ শিকদার বলেন, বিষয়টি অভিভাবক পর্যায়ে সমাধান হয়ে গেছে।


০৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ১৯:৩৪:০৬