লোকালয়ে সুন্দরবনের বাঘ, আতঙ্কে গ্রামবাসী
মাওলা বকস, খুলনা
অ+ অ-প্রিন্ট
সুন্দরবন বিভাগের শরণখোলা রেঞ্জ সংলগ্ন সাউথখালী ইউনিয়নের দুটি গ্রামে রয়েল বেঙ্গল টাইগার আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। বুধবার রাতে বগী-শরণখোলা ভারানী খাল পার হয়ে সুন্দরবন থেকে একটি রয়েল বেঙ্গল টাইগার লোকালয়ে ঢুকে গর্জন শুরু করলে আতঙ্কে নির্ঘুম রাত পার করেছে পানিরঘাট ও সোনতলা গ্রামের লোকজন। সকালে এই দুই গ্রামের প্রায় এক কিলোমিটার এলাকাজুড়ে বাঘের পায়ের তাজা ছাপ দেখতে পেয়েছে স্থানীয় বাসিন্দারা। খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার ভোর থেকে সুন্দরবন বিভাগ, ওয়াইল্ড টিম, টাইগার টিম (ভিটিআরটি), কমিউনিটি পেট্রোলিং (সিপিজি) গ্রুপের সদস্যসহ কয়েকশত গ্রামবাসী অস্ত্রশস্ত্র, লাঠিসোটা নিয়ে বাঘের খোঁজে তলালাশিতে নেমে পড়েন। বৃহস্পতিবার দিনব্যাপী বাঘের খোঁজ চললেও বাঘের কোন সন্ধান মেলেনি। তবে, লোকালয়ে সুন্দরবন বিভাগের নজরদারি অব্যাহত রেখেছে। হ্যান্ডমাইক ও মসজিদের মাইক থেকে এলাকাবসাীকে বাঘের হাত থেকে রক্ষা পেতে সতর্ক বার্তা প্রচার করা হচ্ছে। বাঘ তল্লাশি অভিযানে অংশগ্রহণকারীরা বলছেন, হয়তো খাল সাঁতরে লোকালয়ে আসা বাঘটি রাতেই আবার সুন্দরবনে ফিরে গেছে। তবে, রাতে আবার বাঘটি লোকালয়ে ফিরতে পারে এই আশঙ্কায় এলাকা নজরদারিতে রাখা হয়েছে। সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষ গ্রামবাসীকে সতর্ক থাকতে বলেছে।

সুন্দরবনের ওয়াইল্ড টিমের শরণখোলার মাঠ কর্মকর্তা মোঃ আলম হাওলাদার বলেন, ভোরে গ্রামবাসীর মাধ্যমে বাঘ আসার খবর পেয়ে ভিটিআরটি ও সিপিজি গ্রুপের সদস্যদের নিয়ে ঘটনাস্থলে যাই। এ সময় সুন্দরবন বিভাগকে খবর দেয়া হলে শরণখোলার রেঞ্জ কর্মকর্তার নেতৃত্বে বন বিভাগের একটি দলও সেখানে আসেন। পরে গ্রাবসাীদের নিয়ে তল্লাশি চালানো হয়। কিন্তু বাঘের কোন কোন সন্ধান মেলেনি।

১৯ জানুয়ারি, ২০১৯ ১২:১২:৪১