সুবর্ণচরে গণধর্ষণের ঘটনায় আরও একজন গ্রেফতার
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট


নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলায় ভোটের রাতে গৃহবধূকে দলবেঁধে ধর্ষণের ঘটনায় জড়িত আরও একজনকে কুমিল্লা থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। জেলা ডিবির ওসি আবুল খায়ের বিষয়টি নিশ্চত করেছেন। শুক্রবার সকালে কুমিল্লার দাউদকান্দি এলাকা থেকে জামাল ওরফে হেনজু মাঝি (২১) নামে ওই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়। এ নিয়ে সু্বর্ণচরে গণধর্ষণের ঘটনায়য় মোট ১১ জনকে গ্রেফতার করা হলো।

ওসি আবুল খায়ের জানান, হেনজু মাঝি ঘটনার সঙ্গে জড়িত ছিল বলে ভুক্তভোগী ওই নারী ও অন্য আসামিরা আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। কিন্তু ঘটনার পর হেনজু মাঝি এলাকা ছেড়ে পালিয়ে ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটে যাত্রীবাহী বাসে চালকের সহকারী হিসেবে কাজ নেয়। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আদালতে হাজির করে রিমান্ড আবেদন করা হবে বলে জানান ওসি।

উল্লেখ্য, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোটের দিন রাতে সুবর্ণচরের মধ্যবাগ্যা গ্রামে স্বামী-সন্তানকে বেঁধে রেখে চল্লিশোর্ধ্ব এক নারীকে ধর্ষণের অভিযোগ ওঠে। ওই নারীর অভিযোগ, ভোটের সময় নৌকার সমর্থকদের সঙ্গে তার কথা কাটাকাটি হয়েছিল। এরপর রাতে সুবর্ণচর উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক রুহুল আমিনের ‘সাঙ্গপাঙ্গরা’ বাড়িতে গিয়ে তাকে ধর্ষণ করে। এ ঘটনায় চরজব্বার থানায় ওই নারীর স্বামী মামলা দায়ের করেন। মামলার এজাহারে বলা হয়, আসামিরা তার বসতঘরে ভাংচুর করে, ঘরে ঢুকে বাদীকে পিটিয়ে আহত করে এবং সন্তানসহ তাকে বেঁধে রেখে দলবেঁধে ধর্ষণ করে তার স্ত্রীকে। ডাক্তারি পরীক্ষায় ওই নারীকে ধর্ষণের আলামত পাওয়া গেছে জানিয়ে প্রতিবেদন দিয়েছে মেডিকেল বোর্ড। বর্তামানে নোয়াখালী হাসপাতালে তার চিকিৎসা চলছে।


১১ জানুয়ারি, ২০১৯ ১৭:৩৪:০৩