আগৈলঝাড়ায় শেষ সময়ে জমে উঠেছে পূজার শাড়ি-কাপরের বাজার
তপন বসু, বরিশাল
অ+ অ-প্রিন্ট
১৫ অক্টোবর ষষ্ঠী পূজার মধ্য দিয়ে পাঁচ দিন ব্যাপি শারদীয়া দূর্গোৎসব শুরু হবে। তাই শেষ সময়ে জমে উঠেছে আগৈলঝাড়ায় পূজার নতুন শাড়ি কাপর, কসমেটিক্স ও শিশুদের খেলনার বাজার। উপজেলা সদর বন্দরসহ বিভিন্ন হাট-বাজারে শেষ সময়ে মধ্যবিত্তরা নতুন শাড়ী, তৈরী পোশাক ও কসমেটিক্সের দোকানে কেনাকাটার জন্য ভীড় করছেন। আগৈলঝাড়া মুলত কৃষি প্রধান এলাকা হওয়ায় অধিকাংশ মানুষের জীবন জীবিকা কৃষির উপর নির্ভর হলেও শেষ মুহুর্তে পূজার আনন্দ সকলকে নিয়ে উপভোগ করার আনন্দর একটুও কমতি নেই তাদের মধ্যে। যাদের পরিবারের সদস্যরা ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে রয়েছেন তাদের জন্য নতুন তৈরী জামা কাপড় এলেও এ সুবিধা যাদের নেই তারা এখন শেষ মুহুর্তে আগৈলঝাড়া সদরসহ বিভিন্ন হাট-বাজারের দোকান ও ফুটপাত থেকে নিম্নবিত্ত লোকজন শেষ মুহুর্তের প্রয়োজনীয় কেনাকাটা করছেন। গভীর রাত পর্যন্তদোকানপাটে কেনা বেচার ভীড় ছিল লক্ষ্যনীয়। ফুটপাতের দেকানগুলোতে লুঙ্গি, শাড়ি, জামা-কাপড়ের দাম কম হওয়ায় নিম্ন আয়ের মানুষ সেখান থেকেই চাহিদা অনুযায়ী পরিবারের সদস্যদের বেশী কেনাকাটা করছেন। তবে অনেক নিম্ন বিত্তকেই গোলার ধান বিক্রি করে পরিবারের জন্য জামা কাপড় কিনতে হচ্ছে। নিম্ন আয়ের পরিবারদের লোকজনের সাথে কথা বলে জানা যায়, গত বছরের চেয়ে এবছর শাড়ি, লুঙ্গি, কাপড়ের দাম বেশী। তাই ফুটপাতের দোকানে দাম কম হওয়ায় তারা সেখান থেকে জামা কাপড় কিনছেন। দোকানীরা জানান, পূজা উপলক্ষে অনেক আগেই তারা দোকানে প্রয়োজনীয় কাপড় চোপর সরবরাহ করলেও প্রথমে ক্রেতা কম হওয়ায় শেষ সময়ে বিক্রির জন্যই তাদের অপেক্ষা করতে হয়। দেশী পোশাকের পাশাপাশি এবার মেয়েদের পছন্দের তালিকায় রয়েছে ভারতীয় সিরিয়ালের জামা-কাপড় শীর্ষে। বিক্রেতাদের বেচা বিক্রি চলবে পূজা পরবর্তি এক সপ্তাহ পর্যন্ত বিশেষ করে লক্ষ্মী পূজা পর্যন্ত। 

 

১২ অক্টোবর, ২০১৮ ২৩:৫৪:৩১