আগৈলঝাড়া ভেগাই হালদার পাবলিক একাডেমির 'শতবর্ষ পূর্তি' পালন
নির্বাহী কর্মকর্তার হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন ক্ষুব্ধ প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা
তপন বসু ,বরিশাল
অ+ অ-প্রিন্ট
বরিশালের আগৈলঝাড়ার ভেগাই হালদার পাবলিক একাডেমীর শতবর্ষ পালন করাকে কেন্দ্র করে ঢাকার একটি সংগঠন ও প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করে ইউএনও’র সাথে সাক্ষাত করেছেন ওই বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ও বর্তমান শিক্ষার্থীরা। ঘটনায় ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা বিদ্যালয়ের সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার হস্তক্ষেপ কামনা করছেন। “শতবর্ষ” উদযাপন নিয়ে স্থানীয় প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের মধ্যে দেখা দিয়েছে চরম উত্তেজনা। ইউএনও’র আহ্বানে ঘটনা নিরসনে সিদ্ধান্ত গ্রহনে সভার আহ্বান।   

মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ভেগাই হালদার পাবলিক একাডেমীর সভাপতি বিপুল চন্দ্র দাসের কার্যালয়ে সাক্ষাত করেছেন এ্যাডভোকেট ঝোটন বাড়ৈ, আগৈলঝাড়া প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি অপূর্ব লাল সরকার, ডেন্টাল সার্জন ডা. অমূল্য রতন বাড়ৈ, বাকাল ইউপি চেয়ারম্যান বিপুল দাস, প্রভাষক জিয়াউদ্দিন, উপজেলা যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক অনিমেষ মন্ডল, উপজেলা ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক জাকির পাইক, যুবলীগ নেতা ফাইজুল সেরনিয়াবাতসহ অর্ধ শতাধিক প্রাক্তন ছাত্র।   

সাবেক এসকল শিক্ষার্থীরা অভিযোগ বলেন, শতবর্ষে পদার্পণ করা উপজেলার অন্যতম ঐতিহ্যবাহী বিদ্যাপীঠ আগৈলঝাড়া ভেগাই হালদার পাবলিক একাডেমীর “শতবর্ষ পূর্তি” অনুষ্ঠান উদযাপন উপলক্ষে আড়ম্বরপূর্ণ জমকালো অনূষ্ঠানের আয়োজনের চিন্তা ছিল তাদের বহুদিনের। 

সম্প্রতি (২৮ সেপ্টেম্বর) ঢাকায়  “আপন” সংগঠন কর্তৃক আয়োজন করা হয় ভেগাই হালদার পাবলিক একাডেমীর প্রতিষ্ঠাতা ক্ষণজন্মা পুরুষ ভেগাই হালদারের আবির্ভাব ও তিরোধান দিবস উপলক্ষে স্মরণ সভার। ঢাবি’র আরসি মজুমদার অডিটরিয়মের ওই স্মরণ সভায় ‘‘আপন’’ সংগঠনের সভাপতি নিকুঞ্জ লাল হালদার। ওই অনুষ্ঠানের আমন্ত্রনে প্রধান শিক্ষক যতীন্দ্র নাথ মিস্ত্রী সেখানে গিয়ে ভেগাই হালদার একাডেমী (বিএইচপি একাডেমী)র শতবর্ষ উদ্যাপনের দায়িত্ব দেন আপন (আগৈলঝাড়া নম শুদ্র পরিষদ) সংগঠনকে। অনুষ্ঠান থেকে ফিরে এলাকার প্রাক্তন ছাত্র তথা তার সহপাঠিদের কাছে আলোচনায় “আপন”কে দায়িত্ব প্রদানের কথা জানালে স্থানীয়রা এর ঘোর বিরোধিতা করেন। 

স্থানীয় প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের উপেক্ষা করে ঢাকার সংগঠনকে দায়িত্ব দেয়ায় কথা এলাকায় জানাজানি হলে ক্ষোভ প্রকাশ করেন স্থানীয় প্রাক্তন ও বর্তমান শিক্ষার্থীরা। ওই ক্ষোভের বহিঃপ্রকাশে মঙ্গলবার দুপুরে প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা বিদ্যালয় সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার হস্তক্ষেপ কামনা করেন। 

বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থী উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান জসীম সরদার বলেন, শুনতে পেলাম বিদ্যালয়ের শতবর্ষ পূর্তি অনুষ্ঠান পালনে ঢাকার একটি সংগঠন দায়িত্ব পালন করছে। তারা গত ২৮ সেপ্টেম্বর ঢাকায় বসে অনুষ্ঠান বাস্তবায়নের জন্য মিটিং করেছে। অথচ আমরা স্থানীয় শিক্ষার্থীরা এ বিষয়ে কিছুই জানতে পারলাম না। প্রধান শিক্ষকের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন সময়মত সকলে জানতে পারবেন। এ বিষয়ে সম্পর্কে সভাপতি মহোদয় কিছু জানেন কিনা? ইউএনও’র কাছে জানতে চেয়ে জসীম সরদার বিষয়ের সমাধান দাবি করেন। 

প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা অভিযোগে আরও জানান, আপন এর সকল সদস্যরাই ভেগাই হালদার পাবলিক একাডেমীর শিক্ষার্থী নয়; তাছাড়া ওই সংগঠনের দায়িত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ভেগাই হালদারকে কোন রকমেই “মহান” ও “বড়” করা যাবে না। ভেগাই হালদার কোন নির্দ্দিস্ট জনগোষ্ঠির হতে পারে না।   

প্রকাশ, ১৯১৯ সালের ২৬ জানুয়ারি বিভিন্ন চরাই উৎরাই পেরিয়ে ক্ষনজন্মা পুরূষ ভেগাই হালদার এলাকার জনগোষ্ঠিকে শিক্ষিত করতে নিজ নামে প্রতিষ্ঠা করেন “ভেগাই হালদার পাবলিক একাডেমী”। ভেগাই হালদার নিজে শিক্ষিত না হয়েও পশ্চাদপদ এলাকার জনগোষ্ঠির শিক্ষা প্রসারে তাঁর অবদানের জন্য তিনি অবিস্মরনীয় হয়ে রয়েছেন। 

বিক্ষুব্ধদের কথা শুনে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিপুল চন্দ্র দাস আগামী ৬ অক্টোবর স্থানীয় নেতৃস্থানীয় প্রাক্তন শিক্ষার্থী ও বিদ্যালয়ের শিক্ষক মন্ডলীদের নিয়ে করনীয় বিষয়ে সভা করার আশ্বাস প্রদান করেন। 

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ভেগাই হালদার পাবলিক একাডেমীর সভাপতি বিপুল চন্দ্র দাস এই প্রতিনিধিকে বলেন, বিষয়টি সম্পর্কে তিনি কিছু জানে না। তিনি আরও বলেন, আগামী শনিবার (৬.১০.১৮) সকালে এবিষয়ে করনীয় সম্পর্কে তার নির্দেশে বিদ্যালয়ে সভা আহ্বান করা হয়েছে। প্রধান শিক্ষক যতীন্দ্র নাথ মিস্ত্রী কোন রকমেই “শতবর্ষ” উদ্যাপনের জন্য তাকে না জানিয়ে কাউকে দায়িত্ব দিতে পারেন না। স্থানীয় এমপি আলহাজ্ব আবুল হাসানাত আবদুল্লাহর সাথে আলোচনা সাপেক্ষ অনুষ্ঠানের দিনক্ষণ ও কর্মসূচী নির্ধারণ করা হবে বলেও জানান তিনি।

০৩ অক্টোবর, ২০১৮ ১২:২১:৫৮