চাঁপাইনবাবগঞ্জে পানি বাড়ছে পদ্মা ও মহানন্দায়
জাকির হোসেন পিংকু, চাঁপাইনবাবগঞ্জ
অ+ অ-প্রিন্ট


চাঁপাইনবাবগঞ্জে পানি বাড়ছে পদ্মা ও মহানন্দা নদীতে। তবে তা বিপদসীমার নীচ দিয়েই প্রবাহিত হচ্ছে। জেলার সীমান্ত ঘেঁষা পদ্মা নদীর পাংখা পয়েন্টে (শিবগঞ্জ উপজেলার পাঁকা ইউনিয়নে ভারতের ফারাক্কা বাঁধের নিকটে অবস্থিত) মঙ্গলবার (১১সেস্টেম্বর)  সকাল ৬টায় পদ্মা ২১.৩৫ মিটারে প্রবাহিত হচ্ছিল। এই পয়েন্টে বিপসীমা নির্ণয় করা হয়। যা ২২.৫ মিটার। অর্থাৎ বিপদষীমার ১.১৫ মিটার নীচেই বইছিল পদ্মা। গত সোমবার (১০সেপ্টেম্বর)  যা ছিল ২১.৩০ মিটার।

অপর দিকে জেলার অপর প্রধান নদী জেলা শহর ঘেঁষা মহানন্দা প্রবাহিত হচ্ছে ১৯.৭৭ মিটারে। এর বিপদসীমা ২১.০ মিটার। অর্থাৎ এটাও বিপদসীমার ১.২৩ মিটার নীচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছিল মঙ্গলবার (১১ সেপ্টেম্বর)। মহানন্দা গত সোমবার ১৯.৭২.রোববার ১৯.৬৮ ও শনিবার ১৯.৬৩ মিটারে প্রবাহিত হচ্ছিল। অর্থাৎ গত কয়েকদিনে ৪/৫ সেন্টিমিটিার করে পানি বৃদ্ধি অব্যহত রয়েছে মহানন্দায়।

জেলা পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী সৈয়দ সাহেদুল আলম বলেন, প্রতিবছরই সেপ্টেম্বরে নদীগুলিতে পানি বৃদ্ধি পায়। এ বছরও তার ব্যতিক্রম হয়নি। গত প্রায় ১৫ দিন যাবৎ পদ্মায় ৫ থেকে ১০ সে.মি করে পানি বাড়ছে। আর রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলায় সংযুক্ত পদ্মা-মহনন্দা পয়েন্ট দিয়ে পদ্মার পানি ঢুকে (ব্যক প্রেসারে) পানি বাড়ছে মহানন্দায় ।

প্রকৌশলী  বলেন, ফারাক্কা বাঁধ দিয়ে উজান থেকে (ভারত থেকে) ধেয়ে আসা পানি  পদ্মার এই পানি বৃদ্ধির  কারণ। তবে তিনি বন্যার কোন সম্ভাবনা আছে কিনা সে ব্যাপারে কিছু বলেননি। তিনি বলেন, বন্যা সতর্কীকরণ ও পূর্বাভাষ কেন্দ্রের তথ্য অনুযায়ী আগামী ১৪ সেস্টেম্বর পর্যন্ত এই বৃদ্ধি অব্যহত থাকবে। জেলার নি¤œ চরাঞ্চলের কিছু স্থান পানিতে ডুবে গেলেও (যেগুলি প্রতি বছরই ডুবে যায়) বসতিপূর্ণ কোন নি¤œাঞ্চল প্লাবিত হবার কোন খবর মঙ্গলবার বিকেল পর্যন্ত জানা যায়নি বলেও জানান তিনি।

এদিকে সরেজমিনে মহনন্দা নদী পাড়ে গিয়ে পানি বৃদ্ধি লক্ষ্য করা গেছে। শহরের খালঘাট খেয়াঘাটের মাঝি দুলাল (৩৫) পানি বৃদ্ধির বিষয়টি জানিয়েছেন। বাড়ী ঘেঁষা মহনন্দা সংলগ্ন সদর উপজেলার গহিলবাড়ির এলাকার বাসিন্দা মামলুত হোসেন(৭০) বলেন, গত কয়েকদিন থেকে পানি বৃদ্ধির পরিমান বেশী। তবে জেলার অন্য কোথাও থেকে এখনও নদীর পানি বৃদ্ধিজনিত উল্লেখযোগ্য কোন খবর পাওয়া যায়নি।   

 


১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৯:৩৮:০০