নোয়াখালীতে কলেজছাত্রীর লাশ উদ্ধার
মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, নোয়াখালী
অ+ অ-প্রিন্ট
নোয়াখালীর সুধারাম থানা পুলিশ ৬ তলা ভবনের চাঁদ থেকে শাহীনুর আক্তা  প্রকাশ শান্তা নামের  সস্নাতক শ্রেনীর ৩য়বর্ষের এক কলেজ ছাত্রীর লাশ উ্দ্ধার করছে। শান্তা বেগমগঞ্জ উপজেলার দরাপপু গ্রামের নুর আলমের মেয়ে ও চৌমুহনী সরকারি এসএ কলেজের ছাত্রী। মঙ্গলবার দুপুরে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে মযনা তদন্তেরর জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরন করে। শান্তা নোয়াখালী পৌরভার মাইজদী বাজারস্থ মাষ্টার পাড়া হাজী রুহুল আমিন মিয়ার ৬তলা ভবনের ছাদের চিলেকোটায় ভাড়া থাকত।তিনি বেগমগঞ্জ উপজেলার দরাপপুর গ্রামের নুর আলমের কন্যা।

সুধারাম মডেল থানার এসআই ইসমাইল হোসেন জানান, ওই কলেজ ছাত্রী শান্তা তার স্কুল পড়ুয়া ছোট ভাই রবিনকে নিয়ে গত ১বছর থেকে হাজী রুহুল আমিন মিয়ার ৬তলা ভবনের ছাদের চিলেকোটায় ভাড়া থাকত। ঈদ-উল-আযহার বন্ধে ছোট ভাইকে নিয়ে গ্রামের বাড়ীতে যায়। গত রোববার ভাইকে বাড়ীতে রেখে সে মাষ্টার পাড়ার বাসায় চলে আসে। 

আজ মঙ্গলবার দুপুর থেকে শান্তার বাসা থেকে দুর্গন্ধ বের হতে থাকলে সুধারাম মডেল থানায় খবর দেয় বাড়ির মালিক। এরপর পুলিশ বিকেল ৩টায় ঘটনাস্থলে গিয়ে বাসার দরজা ভেঙ্গে শান্তার দুর্গন্ধযুক্ত লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করে। পুলিশ ধারনা করছে অন্তত: ২দিন আগে সে মারা গেছে।

এদিকে খবর পেয়ে বাবা নূরআলম ও মা হাসিনা আক্তার ঘটনাস্থলে এসে মেয়ের লাশ দেখে বার বার মূর্ছা যেতে থাকেন। তারা ও এ ঘটনায় কোন কিছু অনুমান করতে পারছেননা।

সুধারাম থানার ভারপ্রাপ্ত অফিসার ইনজার্চ (ওস-তদন্ত) শাহেদ উদ্দিন জানান , ময়না তদন্ত শেষে মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত হওয়া যাবে। এঘটনায় থানায় প্রাথমিক ভাবে একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে।

২৯ আগস্ট, ২০১৮ ০৬:৩৯:৫০