নোয়াখালীতে যথাযোগ্য মর্যাদায় বঙ্গবন্ধুর শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালিত
নোয়াখালী প্রতিনিধি
অ+ অ-প্রিন্ট
নোয়াখালীতে যথাযোগ্য মর্যাদায় নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে বঙ্গবন্ধুর ৪৩তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস-২০১৮ পালিত হচ্ছে।  সকালে জেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে জাতির জনকের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের নোয়াখালী জেলার সাধারণ সম্পাদক ও নোয়াখালী-৪ (সদর ও সুবর্ণচর) আসনের সংসদ সদস্য একরামুল করিম চৌধুরী, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট শিহাব উদ্দিন শাহিন, নোয়াখালী পৌরসভার মেয়র শহিদ উল্লাহ খান সোহেল সহ দলীয় নেতৃবৃন্দ।

এছাড়াও  বিভিন্ন উপজেলায় জাতির জনকের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। 

পরে, জেলা শিল্পকলা একাডেমীতে জেলা প্রশাসক তন্ময় দাসের সভাপতিত্বে বঙ্গবন্ধুর জীবন নিয়ে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও নোয়াখালী-৪ (সদর ও সুবর্ণচর) আসনের সংসদ সদস্য একরামুল করিম চৌধুরী। এ সময় অন্যন্যাদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট কাজী মাহবুবুল আলম, আওয়ামীলীগ নেতা এডভোকেট মহিব উল্ল্যাহ, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোজাম্মেল হক মিলন সহ আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ।  

সদর-সুবর্ণচর আসনের এমপি ও জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক একরামুল করিম চৌধুরীর ব্যক্তিগত উদ্যোগে ২০৭টি গরু দিয়ে সদর, সুবর্ণচর, কবিরহাট ও কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় চার লক্ষাধিক লোকের গণভোজের আয়োজন করা হয়েছে।

হাতিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি মাহমুদ আলী রাতুলের উদ্যোগে একশ গরু ছাগল দিয়ে লক্ষাধিক লোকের ভোজের আয়োজন করা হয়েছে। এছাড়া বিভিন্ন স্থানে মসজিদ, মন্দির ও গির্জায় বিশেষ প্রার্থনার আয়োজন করা হচ্ছে।

এছাড়াও সেনবাগে এমপি মোরশেদ আলম এমপি ১৩টি গরু ও জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আতাউর রহমান ভূঁইয়া মানিক ৪টি গরু জবাই করে গণ ভোজের আয়োজন করে। বেগমগঞ্জ, চাটখিল, সোনাইমুড়ি উপজেলায় বঙ্গবন্ধুর শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে দোয়া, মিলাদ মাহফিল, আলোচন সভা ও গণভোজের আয়োজন করা হয়েছে।

 

১৬ আগস্ট, ২০১৮ ০০:০৭:১৬