কোম্পানীগঞ্জ ও সোনইমেুড়িতে ‘গণহিস্টিরিয়ায়’ আক্রান্ত হয়ে ৩৮ শিক্ষার্থী হাসপাতালে
মো, জাহাঙ্গীর আলম, নোয়াখালী
অ+ অ-প্রিন্ট
নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ ও সোনাইমুড়ি উপজেলায় ‘গণহিস্টিরিয়ায়’ আাক্রান্ত হয়ে অন্তত হয়েছে ৩৮ শিক্ষার্থী হাসপাতালে ভতি হয়েছে। আলাদা ঘটনা দুইটি ঘটেছে মঙ্গলবার ৩১জুলাই কোম্পনীগঞ্জ উপজেলার রামপুর ইউনিয়নের বামনী উচ্চ বিদ্যালয়ে ও ৩০ জুলাই সোমবার সোনাইমুড়ি উপজেলার বজরা ইউপির ছনগাঁও বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে । 

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার (৩১ জুলা) বেলা সোয়া ১১টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত রামপুর ইউনিয়নের বামনী উচ্চ বিদ্যালয়ে ও সোনাইমুড়ি উপজেলার বজরা ইউপির ছনগাঁও বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হচ্ছে, বামনী উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী তাফসিয়া ফেরদৌসকে (১৪) প্রথমে কোম্পানীগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে পরে নোয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপতালে পাঠানো হয়েছে। অপরদিকে, অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী সালামা (১৪), সানজিদা (১৪), নুসরাত জাহান (১৪), সামিয়া ইসলাম (১৪) ও ইয়ামিন আক্তারকে (১৪) কোম্পানীগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লক্সএ প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়। অপরদিকে সোনইমুড়ির বজরা ইউপির ছনগাঁও বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে । ১০ম শ্রেণির খাদিজা আক্তার, ৮ম শ্রেণির নিলুফা আক্তার, নিশি আক্তার, পূর্ণিমা আক্তার, সুরাইয়া আক্তার, নাছরিন সুলতানা, রিয়া ও মৌসুমী আক্তার সোনইমুড়ি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপে¬ক্সেএ ভর্তি করানো হয়।

ওই বামনী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবু তাহের দুলাল ও ছনুয়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সফিনাজ বেগম বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, বেলা সোয়া ১১টার দিকে বিদ্যালয়ে ক্লাস চলাকালিন সময় প্রথমে অষ্টাম শ্রেণির ছাত্রী তাসফিয়া ফেরদৌস পেট ব্যথা অনুভব করে অসুস্থ হয়ে পড়ে। পরবর্তীতে অন্যান্য ছাত্রীরা তাকে দেখে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত সপ্তম ও অষ্টম শ্রেণির প্রায় ৩০ ছাত্রী অসুস্থ হয়ে পড়ে।

পড়ে অসুস্থ শিক্ষার্থীদের বামনী উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ও সোনইমুড়ি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সএ প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার পর তাদের পরিবারের লোকজনের সহযোগিতায় নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়ে। 

বামনী উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রের উপ-সহকারি কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার কাউছার জাহান বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা মাস সাইকোজেনিক ইলনেস বা গণহিস্টিরিয়ায় রোগে আক্রান্ত হয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েছে। 

আক্রান্ত শিক্ষার্থীদের দেখতে হাসপাতালে ছুটে যান সোনইমুড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও-ভারপ্রাপ্ত) ফাহমিদা হক, থানা পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) ইমদাদুল হক ও উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ মোস্তফা হোসেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মাইনুল ইসলাম জানান, শিক্ষার্থীরা মাস হিস্টিরিয়ায় আক্রান্ত হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাদের নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

 

০১ আগস্ট, ২০১৮ ০৯:১৫:০৫