পাবনায় মা-ভাই-খালাকে কুপিয়ে হত্যা
পাবনা প্রতিনিধি
অ+ অ-প্রিন্ট
জেলার বেড়া উপজেলায় মা, ছোটভাই ও খালাকে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে তুহিন (২১) নামে এক যুবকের বিরুদ্ধে।

পরিবারের বরাত দিয়ে বেড়া সার্কেলের জ্যেষ্ঠ সহকারী  পুলিশ সুপার আশিষ বিন হাসান বলেন, ভোর ৪টার দিকে সোনাপদ্মা গ্রামের মিঠু হোসেনের বড় ছেলে তুহিন হোসেন ধারালো অস্ত্র দিয়ে তার মা বুলি খাতুন (৪০), ছোট ভাই তুষার হোসেন (১০) ও আপন খালা নছিমন খাতুনকে (৪৫) কুপিয়ে গলা কেটে হত্যা করে।

খবর পেয়ে পুলিশ সকালে বাড়ির উঠোন থেকে তিনজনের লাশ উদ্ধার করে। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত হত্যাকারী তুহিন পলাতক। হত্যার কারণ জানা যায়নি। তবে পারিবারিক বিরোধের জের ধরে এ ঘটনা ঘটতে পারে বলে ধারণা করছে পুলিশ।

তুহিনের স্ত্রী রুনা আকতার জানান, গত দুমাস থেকে তার স্বামী টাইফয়েডে ভুগছিলেন। ফলে তিনি কিছুটা মানসিকভাবে বিকারগ্রস্ত ছিলেন। মঙ্গলবার দিবাগত রাতে তিনি মা ছোটভাই ও খালাকে খুন করে থাকতে পারেন। এর বেশিকিছু জানাতে পারেননি তিনি। পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গৌতম কুমার বিশ্বাস জানান, নিহতদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। পরে ময়নাতদন্তের জন্য পাবনা সদর হাসপাতালে নেয়া হবে।

০৪ জুলাই, ২০১৮ ০৯:৪৪:৩২