পরকীয়া প্রেমিকসহ অবশেষে চেয়ারম্যান-কন্যা আটক
নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি
অ+ অ-প্রিন্ট
নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় পরকীয়া প্রেমের টানে দুই সন্তানকে রেখে প্রেমিকের হাত ধরে পালিয়েছে যাওয়ার এক মাস পর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান কন্যা নাজিরা আক্তার মিতুকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। এসময় পরকীয়া প্রেমিক আবুল হোসেন সজিবকেও আটক করা হয়েছে। ২০ মে রোববার দুপুরে ফতুল্লার সস্তাপুর এলাকা থেকে তাদের আটক ও উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ জানায়, নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান নাজিম উদ্দিনের মেয়ে নাজিরা আক্তার মিতু তার স্বামী উইসুফ মিয়া ও তাদের দুই সন্তান নিয়ে ভূইগড় রূপায়ন টাউনে বসবাস করেন। এরমধ্যে সিদ্ধিরগঞ্জের গোদনাইল এলাকার মৃত শামসুল হকের ছেলে এক সন্তানের জনক আবুল হোসেন সজিবের সঙ্গে পূর্ব পরিচয়ে মিতুর পরকীয়া সম্পর্ক গড়ে উঠে।

এ ঘটনা সজিবের স্ত্রী সায়মা আক্তার জানতে পেরে নারায়ণগঞ্জ পুলিশ সুপার বরাবর গত বছরের ২৩ আগষ্ট একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। এতে উভয় পক্ষকে ডেকে শাসিয়ে দেন পুলিশ। এরপর গত মাসের ১৮ এপ্রিল দুই সন্তান ও স্বামী রেখে রূপায়ণ টাউন থেকে নাজিরা আক্তার মিতু পালিয়ে যায়।

পরে ২৯ এপ্রিল ফতুল্লা মডেল থানায় জিডি করেন মিতুর স্বামী ইউসুফ মিয়া। তবে এর আগের দিন সজিবের ভাই সালাউদ্দিনও ২৮ এপ্রিল একই থানায় আরেকটি জিডি করেন। তার জিডিতে দাবি করা হয়, তাঁর ভাই সজিবকে অপহরণ করা হয়েছে। পরে ২৬ এপ্রিল মিতুর স্বামী ইউসুফ মিয়া একটি অপহরণ মামলা দায়ের করেন।

২১ মে, ২০১৮ ০০:৩৮:৫৮