নোয়াখালীর হাতিয়া ও সুধারাম থেকে দুই লাশ উদ্ধার
মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, নোয়াখালী
অ+ অ-প্রিন্ট
নোয়াখালীতে ১২ ঘন্টার ব্যবধানে দুইটি লাশ উদ্ধার করেছে হাতিয়া ও সুধারাম থানা পুলিশ। এরমধ্যে হাতিয়া থানা পুলিশ রোবরার বিকেলে  জেলার  বিচ্ছন্ন দ্বীপ উপজেলার হাতিয়ার চানন্দি ইউনিয়নের কেরিংচর এলাকার মেঘনা নদীর পাড় থেকে অর্ধগলিত অজ্ঞাত (৩৫)  যুবকের লাশ উদ্ধার করে। একই দিন দুপুরে সুধারাম থানা পুলিশ ফাতেমা বেগম (২০) নামে এক গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

ফাতেমা সদর উপজেলার ধর্মপুর ইউনিয়নের চর দরবেশ গ্রাম সামছুল হকের স্ত্রী।

হাতিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কারুজ্জামান শিকদার লাশ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, দুপুরে চানন্দি ইউনিয়নের কেরিংচরের মেঘনা নদীর পাড়ে ভেসে আসা অর্ধগলিত অজ্ঞাত এক যুবেকের লাশ দেখতে পায়ে স্থানীয় লোকজন হাতিয়া থানায় খবর দেয়। এরপর থানা পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। সোমবার সকালে ময়না তদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতাল  মর্গে প্রেরণ করা হয়।

সুধারাম থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) মনিরুল ইসলাম জানান, সকালে গৃহবধূ ফাতেমার সঙ্গে তার স্বামী সামছুলের পারিবারিক বিভিন্ন বিষয়াদি নিয়ে কলহ হয়। দুপুরে ফাতেমা পরিবারের সবার অজান্তে ঘরের আঁড়ার সঙ্গে ওড়না পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন। পরে বাড়ির লোকজন ঘরে ফাতেমাকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

উভয় ঘটনায় থানায়  আলাদা দুইটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে।

 

২৩ এপ্রিল, ২০১৮ ০৯:১০:৫৪