'নারী শিক্ষা দিতে পারে একটি জাতিকে সম্মানীয় স্থান'
মো.নজরুল ইসলাম খান বুলু, বীরগঞ্জ (দিনাজপুর)
অ+ অ-প্রিন্ট
নারীরা এখন কোন কাজে পিছিয়ে নেই এমন মন্তব্য করে জাতীয় সংসদ সদস্য মনোরঞ্জন শীল গোপাল বলেছেন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে শুরু করে বাংলাদেশের বিভিন্ন সেক্টরে পুরুষের পাশাপাশি নারীরা কাজ করছেন। আর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নারীদের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছেন। 

ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ কাহারোল মহিলা ডিগ্রী কলেজে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের ব্যবস্থাপনায় ২ কোটি ৪০ লক্ষ টাকা ব্যয়ে চার তলা একাডেমিক ভবনের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন ও অভিভাবক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথা গুলো বলেন। 

কাহারোল মহিলা ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ মোছা. আনজুমান আরা বেগম এর সভাপতিত্বে সমাবেশে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান মো. মামুনুর রশীদ চৌধুরী, দিনাজপুর শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর এর নির্বাহী প্রকৌশলী মো. মিজানুর রহমান, জেলা শিক্ষা অফিসার মো. রফিকুল ইসলাম, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. নাসিদ আহমেদ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি একেএম ফারুক হোসেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক মো. হাফিজুল ইসলাম চৌধুরী ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সঞ্জয় কুমার মিত্র। 

এমপি গোপাল আরো বলেন, জাতীয় উন্নয়ন কর্মকান্ডে নারীর অংশগ্রহণ নিশ্চিত করার অংশ হিসেবে আওয়ামী লীগ সরকার জাতীয় উন্নয়ন পরিকল্পনা এবং জাতীয় বাজেটেও নারী উন্নয়নকে সম্পৃক্ত করেছে।  বাংলাদেশের অর্ধেক জনগোষ্ঠী নারী। তাদের বাদ দিয়ে জাতীয় উন্নয়ন সম্ভব নয়। এ কারণে শেখ হাসিনা ব্যক্তিগত উদ্যোগে নারীর অগ্রগতিকে গুরুত্ব দিয়েছেন।

তিনি আরো বলেন, বর্তমান সরকার মেধাবী জাঁতি গঠনে যোগ্যদের পুরস্কৃত করছে। মেধাবীরা জাতির ভবিষ্যত। এজন্য আগামি প্রজন্মকে মেধা সম্পন্ন করে গড়ে তুলতে হবে। নারী শিক্ষা সম্প্রসারণের লক্ষ্যে বর্তমান সরকার একাডেমিক ভবন নির্মান করে শিক্ষার পরিবেশ নিশ্চিত করছে। নারী শিক্ষা দিতে পারে একটি জাতিকে সম্মানীয় স্থান। দেশের জনগণকে পুনরায় আওয়ামীলীগকে ভোট দেয়ার আহবান জানিয়ে প্রধান অতিথি আরো বলেন বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা নারী শিক্ষা সম্প্রসারণের লক্ষ্যে নানারূপ যুগান্তকারী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। 

এর আগে কাহারোল উপজেলা সমাজসেবা এর আয়োজনে ৫ জন ক্যান্সার, কিডনী ও লিভার সিরোসিস, স্ট্রোকে প্যারালাইজড এবং জন্মগত হৃদ রোগে আক্রান্ত রোগীকে ৫০ হাজার টাকা করে প্রতি জনকে চেক প্রদান, উপজেলা মহিলা অধিদপ্তরের আয়োজনে ৩ জন মহিলাকে সেলাই মেশিন প্রদান এবং উপজেলা প্রকৌশলীর কার্যালয় এর আয়োজনে “রংপুর বিভাগ গ্রামীণ অবকাঠামো উন্নয়ন (RDRIIP) শীর্ষক প্রকল্প”  এর আওতায় গ্রামীণ রাস্তার রক্ষণাবেক্ষণ কাজে নিয়োজিত এলসিএস (LCS) মহিলা কর্মীদের সঞ্চয়কৃত মোট ২০ লক্ষ ৭৪ হাজার টাকার চেক ৬১ মহিলা কর্মীদের মাঝে বিতরণ করেন এমপি গোপাল।

 

০৯ মার্চ, ২০১৮ ২২:৩৩:১৬