মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে দেশের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষা করতে হবে : মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী
মোঃ নজরুল ইসলাম খান বুলু, বীরগঞ্জ (দিনাজপুর)
অ+ অ-প্রিন্ট
হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বাধীনতার নায়ক এ কথা উল্লেখ করে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ.ক.ম. মোজাম্মেল হক এমপি বলেছেন, অনেক কষ্ট ও ত্যাগের বিনিময় বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছে। তাই স্বাধীনতার এই অর্জিত সম্পদ আমাদের ধরে রাখতে হবে।

২০ অক্টোবর শুক্রবার সন্ধ্যা ৬ টায় দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলায় ১ কোটি ৯৭ লক্ষ টাকা ব্যয়ে নব-নির্মিত “বীরগঞ্জ উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স” এর উদ্বোধন শেষে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। এসময় তিনি নব নির্মিত কমপ্লেক্স ভবন চত্বরে অবস্থিত জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পন করেন। পরে মতবিনিময় সভার শুরুতে যেসকল মুক্তিযোদ্ধা মৃত্যুবরণ করেছেন তাদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।

মন্ত্রী আরো বলেন, বহু ত্যাগের বিনিময়ে অর্জিত দেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্বকে আরও অর্থবহ করতে গণতান্ত্রিক অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখতে হবে। দলমত নির্বিশেষে সকলকে একযোগে কাজ করতে হবে। আর মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে দেশের উন্নয়ন ও গণতন্ত্রের ধারাবাহিকতা রক্ষা করতে হবে। আর সবাই মিলে একটি সেবামুখী, ক্ষুধা-দারিদ্র্যমুক্ত ও সুখী-সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ে তুলতে হবে।

বীরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিল মোহাম্মদ আলম হোসেন এর সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখছেন দিনাজপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য মনোরঞ্জন শীল গোপাল, দিনাজপুর এলজিইডি’র নির্বাহী প্রকৌশলী মো. খলিলুর রহমান। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি বলেন, রাজাকাররা আর বাংলাদেশে ক্ষমতায় আসতে পারবে না। যতদিন লাল সবুজের পতাকা থাকবে, ততদিন বাংলাদেশের স্বাধীনতা অক্ষুণœ থাকবে। আর বাংলার মাটিতে স্বাধীনতা বিরোধীদের ঠাঁই হবে না। 

মুক্তিযোদ্ধাদের উদ্দেশে এমপি গোপাল বলেন, স্বাধীনতা বিরোধীদের চিহ্নিত করুন, যাতে তারা মাথা তুলে দাঁড়াতে না পারে। স্বাধীনতার প্রকৃত ইতিহাস তরুণ প্রজন্মের কাছে পৌঁছে দিতে মুক্তিযোদ্ধাদের শিক্ষকের ভূমিকা রাখতে হবে। তবেই তরুণ প্রজন্ম স্বাধীনতার সঠিক ইতিহাস জানতে পারবে। এসময় জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আবুল কালাম আজাদ, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর মো. আব্দুল হাকিম, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক ফারুকুজ্জামান চৌধুরী মাইকেল, উপজেলা এলজিইডি প্রকৌশলী ফিরোজ আলম, উপজেলা সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার কালীপদ রায়।

উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধানর সম্পাদক মো. নুর ইসলাম নুর, বীরগঞ্জ থানার ওসি আবু আক্কাছ আহম্মেদ, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো.শামীম ফিরোজ, বীরগঞ্জ পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. মোশারফ হোসেন বাবুল, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক অধ্যক্ষ রফিকুল ইসলাম রফিকসহ বীর মুক্তিযোদ্ধাবৃন্দ ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। সভা সঞ্চালনা করেন বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. আব্দুল খালেক।

 

২১ অক্টোবর, ২০১৭ ২৩:০১:১২