খোকসা শোমসপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে কোচিং ফি আদায়ের অভিযোগ
মোঃ রাকিবুল ইসলাম, কুষ্টিয়া
অ+ অ-প্রিন্ট


খোকসা শোমসপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে কোচিং ফি’র নামে মাসিক টাকা আদায়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে। জানাগেছে বিদ্যালয়ের সকল শিক্ষার্থীদের বাধ্যতামূলক কোচিং ফি দিতে হবে মর্মে আজব এক নিয়ম চালু করেছে বিদ্যালয় কতৃপক্ষ। ৬ষ্ট ও ৭ম  শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের নিকট থেকে ১৫০ টাকা এবং ৮ম,৯ম ও ১০ ম শ্রেনীর শিক্ষার্থীদের ২০০ টাকা প্রতিমাসে বাধ্যতামূলক কোচিং ফি আদায় করা হচ্ছে। বিদ্যালয়ে এবার ৮৮৬ জন শিক্ষার্থী ২য় সাময়িক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছে।  নাম না প্রকাশের শর্তে ৮ম শ্রেণীর একাধিক শিক্ষার্থী কোচিং ফি ও জরিমানা ফি’র নামে টাকা আদায়ের অভিযোগ করেছেন। এ বিষয়ে স্থানীয় সাংবাদিকদের কাছে কোচিং ফি নেওয়ার কথা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ আয়েন উদ্দীন স্বীকার করেন। তিনি বলেন, ম্যানেজিং কমিটির মিটিং এ অভিভাবকদের সম্মতিতে উক্ত হারে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে কোচিং ফি আদায় করা হচ্ছে। এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের ম্যানিজিং কমিটির সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা ফজলুল হক এর মুঠোফোনে ফোন করেও তাকে পাওয়া যায় নি। শোমসপুর বিদ্যালয়ের কয়েকজন শিক্ষার্থীদের অভিভাবক জানান, দারিদ্রতার কারনে পরীক্ষার সকল টাকা দিতে পারি নাই। আগামী ১৩/০৭/২০১৭ ইং তারিখে বকেয়া টাকা পরিশোধের সময়সীমা বেধে দিয়েছে  বিদ্যালয় কতৃপক্ষ। যা উক্ত বিদ্যালয়ের রশিদ ম্যামো থেকে সত্যতা পাওয়া গিয়েছে। খোকসা উপজেলার সনামধন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শোমসপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের কতৃপক্ষের এরকম কর্মকান্ডে উক্ত বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মাঝে তীব্র অসন্তোষ বিরাজ করছে। উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ ফজলুর রহমান এর মৌখিক অনুমতিও রয়েছে বলে একটি সূত্র জানিয়েছে।


০৯ জুলাই, ২০১৭ ২৩:৪০:১৫