ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ফোরাম কানাডার উদ্যোগে ও বিসিসিবির সহায়তায় ‘উইন্টার ক্লথ ড্রাইভ’
অ+ অ-প্রিন্ট
কানাডার আর্তমানবতার সেবায় এগিয়ে এলো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ফোরাম কানাডা, প্রতিষ্ঠিত হলো মহৎ উদাহরন। ‘জার্নি অব হোপ’ শ্লোগান নিয়ে এগিয়ে চলা কানাডার সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন বিসিসিবির সহায়তায় প্রথমবারের মত কানাডার টরন্টো শহরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ফোরাম কানাডার উদ্যোগে স্হানীয় হোমলেস দু:স্হদের জন্য তিন সপ্তাহব্যাপী ‘উইন্টার ক্লথ ড্রাইভ’ কর্মসুচী গ্রহন শুরু করা হয়। গত ২১শে জানুয়ারী থেকে শুরু করে শেষ হয় গত রবিবার ফেব্রুয়ারীর ১১ তারিখে। দু:স্হদের নিয়ে কাজ করা ডাউন টাউন টরন্টোর অন্যতম বৃহৎ ননপ্রফিট বহুমুখি সংগঠন ‘মার্গারেট’ এর ড্রপিং সেন্টারে তিন সপ্তাহব্যাপী সংগ্রহকৃত ব্যবহৃত ও নুতন শীতের কাপড় ডোনেট করা হয়।

টরন্টোবাসীর মধ্যে সাড়া জাগানো এ ধরনের ব্যতিক্রমী উদ্যাগে সর্বপ্রথম যিনি সাড়া দিয়ে এগিয়ে আসেন তিনি হলেন জনপ্রিয় আবৃত্তিকার ও উপস্হাপিকা দিলারা নাহার বাবু। তারপর একে একে টরন্টোবাসীর অনেক জানা অজানা মানবদরদী বৃহৎ হৃদয়ের মানুষেরা জমা দিতে থাকেন তাদের পুরনো ও নুতন শীতের কাপড়। এইসব সংগ্রহ তিনটি সপ্তাহ জমা রাখতে টরন্টোর সুপরিচিত ব্যবসায়ী এটিএন মেগা ষ্টোরের মালিক জনাব শামসুদ্দোহা তার দোকান খুলে দেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ফোরামের পক্ষে ব্যারিষ্টার কামরুল হাফিজ, এ্যাডভোকেট সালাম শরীফ, শহীদুল ইসলাম মিন্টু, ইশতিয়াক উদ্দিন আহমেদ, সাজেদুন নাহার, আসমা হক সহ ফোরামের কর্মকর্তারা এগিয়ে আসেন শীতের কাপড় ড্রাইভের এই মহান কর্মসুচী সফল করে তুলতে।

বেকারদের কর্ম সংস্হান, বন্যার্তদের সাহায্যার্থে ফান্ড কালেকশন, শিশু কিশোর, মহিলাদের মানবিক গুনাবলী, নেতৃত্ব বিকাশ ইত্যাদি নানা ধরনের পজিটিভ কর্মসুচী গ্রহনের মাধ্যমে ইতিমধ্যেই গ্রেটার টরন্টো এলাকায় ব্যাপক সাড়া জাগানো সংগঠন ‘বাংলাদেশী কানাডিয়ান কানাডিয়ান বাংলাদেশী (বিসিসিবি)’ এগিয়ে আসেন এই মহৎ কাজের পাশে দাড়াতে। বিসিসিবির পক্ষে অগ্রনী ভুমিকা পালন করেন দেওয়ান আহমেদ, হাসনাত তারেক, নাদিয়া হাসান, রুমানা সেলিম, আরিফ চৌধুরী, নাজরানা খাদিজা হক লিউবা, শারমিন আজিজ খান, সোনিয়া হোসেন প্রমুখ।ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ফোরাম কানাডার উদ্যোগে ও বিসিসিবির সহায়তায়  ‘উইন্টার ক্লথ ড্রাইভ’
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ফোরাম কানাডার উদ্যোগে ও বিসিসিবির সহায়তায়  ‘উইন্টার ক্লথ ড্রাইভ’

উইন্টার ক্লথ ড্রাইভের শেষ দিন রবিবার দুপুর একটায় টরন্টো ডাউন টাউনের মার্গারেট ড্রপিং সেন্টারে সংগ্রহকৃত কয়েকশত শীতের কাপড় আনুষ্ঠানিকভাবে গ্রহন করেন সেন্টারের সুপারভাইজার জেমস। উপস্হিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ফোরামের সভাপতি আব্দুল হালিম মিয়া, সাধারন সম্পাদক ইশতিয়াক উদ্দিন আহমেদ, সাবেক ছাত্রনেতা নুর মোহাম্মদ কাজী, সাজেদুন নাহার, বিসিসিবির পক্ষে উপস্হিত ছিলেন বাংলাদেশী কানাডিয়ান ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা প্রেসিডেন্ট রিমন মাহমুদ এবং বিসিসিবি উইমেন ক্লাব এবং বিসিসিবি ফুড ও হেলথ ক্লাবের প্রেসিডেন্ট রুমানা সেলিম।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ফোরাম কানাডার পক্ষে আব্দুল হালিম মিয়া ও বিসিসিবির পক্ষে রিমন মাহমুদ সকল ডোনারদের আন্তরিক ধন্যবাদ জানান এবং প্রচন্ড খারাপ আবহাওয়া উপেক্ষা করে উপস্হিত সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন এবং  কানাডিয়ান সমাজের উন্নয়নে ও মানবতার সেবায় দুটি সংগঠন ভবিষ্যতেও এ ধরনের আরো কর্মসুচীতে একসাথে কাজ করবে বলে দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ফোরাম কানাডার উদ্যোগে ও বিসিসিবির সহায়তায়  ‘উইন্টার ক্লথ ড্রাইভ’
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ফোরাম কানাডার উদ্যোগে ও বিসিসিবির সহায়তায়  ‘উইন্টার ক্লথ ড্রাইভ’

১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ১০:২৭:৩৫