'কমিউনিটি বিনির্মাণে মিডিয়ার ভুমিকা' শীর্ষক আলোচনা
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম
অ+ অ-প্রিন্ট

গত ১২ নভেম্বর রবিবার সন্ধ্যায় টরন্টোর মিজান অডিটোরিয়ামে ‘কমিউনিটি বিনির্মাণে মিডিয়ার ভুমিকা’ শীর্ষক চমৎকার এক আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়ে গেল। স্হানীয় সাপ্তাহিক বাংলা পত্রিকা ‘আজকাল’ আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন মহান ভাষা সৈনিক সর্বজন শ্রদ্ধেয় জনাব শামসুল হুদা। আজকাল পত্রিকার প্রধান সম্পাদক সৈয়দ আব্দুল গাফফারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন এনআরবি টেলিভিশনের ব্যবস্হাপনা পরিচালক ও সাপ্তাহিক বাংলা মেইলের সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি আব্দুল হালিম মিয়া, অনলাইন দেশে বিদেশের প্রধান সম্পাদক ও দেশে বিদেশে টিভির সিইও নজরুল মিন্টো,ফোবানার ষ্টিয়ারিং কমিটির চেয়ারম্যান আবু জুবায়ের দারা, সাপ্তাহিক আজকালের সম্পাদক মাহবুব আহমেদ চৌধুরী রনি,  ডিজিটাল বাংলা নিউজের প্রকাশক মোহাম্মদ হাসান, সাপ্তাহিক দেশের আলোর  চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার রেজাউর রহমান, সাপ্তাহিক ভোরের আলোর সম্পাদক আহাদ খোন্দকার, সাপ্তাহিক নবদ্বীপের সম্পাদক এম এইচ মামুন, আর্ন্তজাতিক খ্যাতিসম্পন্ন চিত্রশিল্পী ও লেখক সৈয়দ ইকবাল, টিডিএসবির সাবেক শিক্ষক তৌহিদ নোমান, লেখক নুর মোহাম্মদ কাজী, সাপ্তাহিক সিবিএন২৪ এর প্রধান সম্পাদক মাহাবুবল হক ওসমানী, আবৃত্তিকার আহমেদ হোসেন, রিয়েলটর আলম মোড়াল, বঙ্গবন্ধু পরিষদের সভাপতি আমিন মিয়া, রিয়েলটর দেওয়ান হক সহ আরো অনেকে। অন্যান্যের মধ্যে উপস্হিত ছিলেন এনআরবি টিভির নির্বাহী পরিচালক ও সাপ্তাহিক বাংলা মেইলের ব্যবস্হাপনা সম্পাদক ইউসুফ শেখ, অনলাইন নুতন দেশের সম্পাদক ও বিশিষ্ট সাংবাদিক শওগাত আলী সাগর, সাপ্তাহিক বাংলা কাগজের সম্পাদক এম আর জাহাঙ্গীর, সমাজ সেবক সামসুল আলম, বাংলাদেশ ফেস্টিভ্যালের অন্যতম সংগঠক, আবৃত্তিকার আসমা হক সহ বাংলাদেশী কমিউনিটির গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।'কমিউনিটি বিনির্মাণে মিডিয়ার ভুমিকা' শীর্ষক আলোচনা


সভায় বক্তারা বাংলাদেশী কমিউনিটির উন্নয়নে স্হানীয় টেলিভিশন, সংবাদপত্র তথা মিডিয়ার ভুমিকার নানা দিক নিয়ে দীর্ঘক্ষণ আলোচনা করেন। কানাডার বাংলাদেশী অভিবাসীদের ভাগ্য উন্নয়নে তথ্যের গুরুত্ব অপরিসীম বিবেচনায় রেখে একে অপরের সহযোগীতার ভিত্তিতে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে পারলে অন্যান্য জাতিগোষ্ঠির সাথে পাল্লা দিয়ে বাংলাদেশী কমিউনিটিও খুব শীঘ্রই আরো এগিয়ে যাবে বলে সকলেই আশাবাদ ব্যাক্ত করেন। বাংলাদেশী অভিবাসীর পরবর্তী জেনারেশন বা নুতন প্রজন্মের অধিকাংশ ছেলে মেয়েরা বাংলা পত্রিকাগুলো পড়তে না পারায় যে ডিসকানেকশন তৈরী হয়েছে সে বিষয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে বক্তারা কিভাবে তাদের সাথে আরো বেশী করে সম্পকৃতা বাড়ানো যায় সে উপায় খুঁজে বের করতে সকলকে সচেষ্ট হতে আহবান জানান।


একজন ভারতীয় বা চাইনিজ অভিবাসী এদেশে যত দ্রুত কর্মসংস্হানের ব্যবস্হা করতে পারে শুধুমাত্র সঠিক তথ্যের অভাবের কারনেই আমাদের অভিবাসীরা অনেকটা পিছিয়ে থাকেন বলে উল্লেখ করে কেউ কেউ স্হানীয় পত্রপত্রিকা ও মিডিয়া সেই অভাব অনেকটাই দুর করতে পারেন বলে মত প্রকাশ করে বলেন, কমিউনিটির সার্বিক কল্যাণে আরো বেশী সহযোগীতামুলক মনোভাব দরকার। সেক্ষেত্রে কেউ কেউ টরন্টোতে একটা বাংলাদেশী প্রেসক্লাব গঠনের কথা গুরুত্বের সাথে উল্লেখ করেন।


সবশেষে আজকাল সম্পাদক মাহবুব আহমেদ চৌধুরী রনি এ ধরনের আয়োজন অব্যাহত থাকবে বলে আশাবাদ ব্যাক্ত করেন এবং অনুষ্ঠানে আগত সকলকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।

১৬ নভেম্বর, ২০১৭ ০৯:২৫:১৯