সঞ্চারীর একাদশ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে সাংস্কৃতিক আয়োজন
অজন্তা চৌধুরী
অ+ অ-প্রিন্ট
আগামী ২৬শে আগস্ট শনিবার সন্ধ্যে ৭.৩০ মিনিটে  মিসিসাগায় অবস্থিত ওয়েস্ট মিনিস্টার ইউনাইটেড  চার্চ এ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে সঞ্চারীর একাদশ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষ্যে একটি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। সমস্ত রকম পূর্ব প্রস্তুতি শেষ করে সঞ্চারীর এই আয়োজন এখন অপেক্ষা করছে ভিন্ন ধারার একটি অনুষ্ঠানের যেখানে দর্শক শ্রোতা শুধু সুর, বাণী নৃত্যের ছন্দ এবং সীতারের মিষ্টি ছোয়ায় একটি অন্যরকম সন্ধ্যা তাদের মনের মনিকোঠায় চরম মমতায় লালন করতে পারবেন। 

সুস্থধারার বাংলা সংস্কৃতি চর্চার অভিপ্রায়ে টরন্টোর কিছু সংস্কৃতিপ্রেমীর উৎসাহে সঞ্চারী সংগঠনটির আত্মপ্রকাশ ঘটে ২০০৬ সাল থেকে। শুধু সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানই নয়, পাশাপাশি সামাজিক দায়িত্ব  পালন করে আসছে সঞ্চারী সম্পূর্ণ ব্যক্তিগত উদ্যোগে যার আওতাই রয়েছে রীনা হক স্কলারশিপ এবং রীনা হক রাম্প। রীনা হক স্কলারশিপ যা সাহায্য করে দেশে গরীব কিন্তু মেধাবী ছাত্র ছাত্রীদের তাদের শিক্ষা খাতে এবং পঙ্গুদের জন্য ঢাকায় রীনা হক রাম্প নামে একটি রাম্প স্পন্সর করে অনন্য দুইটি দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে সঞ্চারীর সংস্কৃতিকর্মীগন  । উল্লেখ্য রিনা হক ছিলেন সঞ্চারীর ফাউন্ডিং প্রেসিডেন্ট এবং তিনি মৃত্যুর আগে পর্যন্ত সঞ্চারীতে তাঁর অনেক অবদান রেখে গেছেন। 

 সঞ্চারীর আয়োজন মানেই শুদ্ধ সংস্কৃতির চর্চা। বরাবরের মতো বাংলাদেশ এবং ভারতের বিভিন্ন স্বনামধন্য শিল্পীদের নিয়ে সঞ্চারী এবারও আয়োজন করছে গানের অনুরণন , কবিতার ছন্দ , নৃত্যের শৈল্পিক উপস্থাপন এবং ভিন্ন ধারার সীতারের মূর্ছনা। এবারের আয়োজনে সঞ্চারীর শিল্পীবৃন্দ ছাড়াও  অতিথি শিল্পী  হিসাবে রয়েছেন টরোন্টোর প্রিয় মুখ এবং গুণী সংগীত শিল্পী সূচনা বড়ুয়া, টিনা কিবরিয়া এবং শিখা রউফ, নৃত্য পরিবেশনায় থাকবেন বিশিষ্ট নৃত্যশিল্পী তাপস দেব ও চিত্র দাস.  কবিতা আবৃতিতে থাকবেন টরোন্টোর সংস্কৃতি অঙ্গনের প্রিয়জন   হাসান মাহমুদ যিনি সঞ্চারীর একজন আত্মনিবেদিত প্রাণ  এবং প্রিয় কণ্ঠ দিলারা নাহার বাবু। শিল্পীদের সাথে সংগীতে তবলায় ঝড় তুলবেন কলকাতার বিশিষ্ট তবলা বাদক অশোক দত্ত এবং কী- বোর্ড এ থাকবেন টরন্টো সংগীতাঙ্গনের প্রিয় শিল্পী মাহবুবুল হক।  সঞ্চারীর আত্মনিবেদিত কর্মী যারা সঞ্চারীর এই আয়োজনে সংগীত পরিবেশনায় থাকবেন তারা হচ্ছেন , শাজাহান কামাল, অতুল গনি , শওকত হোসেন , সূচনা বড়ুয়া , রেহানা রহমান , বেনু রেজা, ইভা গনি এবং লাভলী।  অনুষ্ঠানটিতে একটি ভিন্ন আমেজ  যোগ করবার জন্য আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে ভারতের  বিশিষ্ট এবং স্বনামখ্যাত সীতার বাদক ইরশাদ খানকে। মূলতঃ ইরশাদ খান আন্তর্জাতিকভাবে তাঁর স্বকীয়তা ধরে রেখেছেন বুহদিন যাবৎ এবং উদাহরণ হিসাবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন।  তিনি একমাত্র সীরাত বাদক যিনি সীতারের সাথে তাঁর  কণ্ঠ মিলিয়ে একটি  আলাদা মাত্রা যোগ করেন। সঞ্চারীর এই আয়োজনে তাঁর উপস্থিতি শ্রোতা হৃদয়ে ভালোলাগার পরশ বুলাবে তাতে সন্দেহ নেই। অনুষ্ঠাটি সঞ্চালনায় থাকবেন অজন্তা চৌধুরী।সঞ্চারীর একাদশ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে সাংস্কৃতিক আয়োজন

২২ আগস্ট, ২০১৭ ২১:০৪:৫২