যাত্রা সিরাজুদ্দৌলাহ মঞ্চায়নের সাফল্য উদযাপন
অজন্তা চৌধুরী
অ+ অ-প্রিন্ট
টরোন্টোতে গত ১৮ ও ১৯  মার্চ অনুষ্ঠিত হয় টরন্টো থিয়েটার প্লাস এর প্রথম প্রযোজনা যাত্রা "সিরাজুদৌল্লাহ ", এরই আলোকে যাত্রাটিতে অংশগ্রণকারী কলাকুশলী এবং অংশগ্রহণকারী সবাইকে আমন্ত্রণ জানানো হয় ডানফোর্থে অবস্থিত রেস্টুরেন্ট ক্যাফে ডি তাজে  একটি মধ্যাহ্ন ভোজের আয়োজনে গত ৯ এপ্রিলে । অনুষ্ঠানের প্রথমের টরন্টো থিয়েটার প্লাস এর সাধারণ সম্পাদক রিজুয়ান রহমান সবাইকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন  করেন সাথে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন সবার প্রতি । "সিরাজুদ্দৌলাহ "র  মঞ্চায়ন এখানেই থেমে  যাবে না, ভবিষ্যতে এমন আরো অনেক সৃষ্টিশীল গঠনমূলক কাজ নিয়ে টরন্টো থিয়েটার প্লাস সামনের দিকে এগিয়ে যাবে এমন দৃঢ় প্রত্যয় ছিল উপস্থিত দুই সংগঠক রিজুয়ান রহমান ও মানিক চাঁদ এর বক্তব্যে।  অনুষ্ঠাটিতে অংশগ্রহণকারী সুকন্যা  নৃত্যাঙ্গনের তরুণ প্রজন্মকে উৎসাহিত করতে বিশেষ সনদপত্র প্রদান করা হয়।   

নিঃসন্দেহে একটি সফল মঞ্চায়নের পিছনে থাকে আয়োজনের সাথে সংশ্লিষ্ট আত্মত্যাগী কিছু মানুষের  অক্লান্ত পরিশ্রম। প্রবাসে শত ব্যস্ততার  মাঝে এই  গল্পগাথাই যেন সেদিন ছিল মূল বিষয়।  দুই দিনের মঞ্চায়নের এই ভাবনা এবং সেটার সার্থক বাস্তবায়নের সাথে থাকে অনেকগুলো মানুষের নির্স্বার্থ প্রচেষ্টা যার মাঝে দুজন মানুষের নাম প্রথমেই চলে আসে, মানিক চাঁদ এবং রিজুয়ান রহমান। টরন্টো থিয়েটার প্লাস মূলত দুই জন স্বপ্নবাজ মানুষের স্বপ্নের ফসল, তাদের স্বপ্নজালে  যখন আটকা  পরে এক ঝাঁক গুণী অভিনয় শিল্পী তখন কাজটার রূপায়ণ অনেকটাই সহজ হয়ে যায়।  নৃত্যশিল্পী অরুণা হায়দার এর পরিকল্পনায় যখন সিরাজুদ্দৌলাহ যাত্রার  কস্টিউম তৈরী শুরু বাংলাদেশ এ, তখন ব্যক্তিগত  বাংলাদেশ সফরের কথা মাথায় না রেখে কস্টিউম সহ যাত্রায় আনুসাঙ্গিক ব্যবহৃত সরঞ্জামাদি সংগ্রহ এর জন্য রিজুয়ান রহমান তার সময় ব্যয় করেন, সাথে সামগ্রিক ব্যবস্থাপনার মূল দায়িত্ব তো ছিলই তার কাঁধে পুরো চারটি মাস ।  তুষারপাত বা  বৈরী আবহাওয়া কে  তোয়াক্কা না করে মানিক চাঁদ এবং সুব্রত পুরু সপ্তাহের কাজের দিন গুলি সহ ছুটির দিনে অনুশীলন চালান শিল্পীদের নিয়ে, আর অভিনয় শিল্পীরা তাদের ব্যক্তিগত কাজকে পাশে সরিয়ে রেখে অনুশীলনে মনোনিবেশ করেন।  নৃত্যশিল্পী অরুণা হায়দার তার সুকন্যা নৃত্যাঙ্গনের ক্ষুদে নৃত্য  শিল্পীদের তৈরী করতে থাকেন মঞ্চায়নের দিনের জন্য। এভাবেই হয়তো সবার এতটা আত্মত্যাগ ছিল বলেই এমন একটি সৃজনশীল সৃষ্টি উপহার দিতে পেরেছেন টরন্টো থিয়েটার প্লাস।  যাত্রা যা আমাদের বাংলাদেশ এর আবহমান প্রেক্ষাপট থেকে প্রায় বিলুপ্তির পথে, এমন একটি সময় এ শিকড়ের টানে বাঙ্গলা সংস্কৃতিকে হৃদয়ে ধারণ এবং লালন করে টরন্টো থিয়েটার প্লাস এর "সিরাজুদ্দৌলাহ "  যাত্রা মঞ্চায়ন টরোন্টোবাসী প্রবাসী বাংলাদেশিদের মাঝে ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি করে।  ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা টরন্টো থিয়েটার প্লাসকে, সুস্থ সংস্কৃতির ধারা অব্যহত থাকুক প্রবাসে এমন প্রত্যাশা জ্ঞাপনের মাধ্যমে সেদিনের সিরাজুদ্দৌলাহ যাত্রার কলাকুশলী ও অভিনয়শিল্পীরা ঘরে  ফেরেন।যাত্রা সিরাজুদ্দৌলাহ  মঞ্চায়নের সাফল্য উদযাপন

 

১২ এপ্রিল, ২০১৭ ০২:১০:১৯