শিশুদের রঙ-তুলিতে মহান একুশে
অ+ অ-প্রিন্ট


টরন্টোর বাঙালী শিশুরা রঙ-তুলিতে নান্দনিকভাবে ফুটিয়ে তুললো মহান একুশ, শহীদ মিনার আর ১৯৫২ সালের বীরত্মগাঁথা বাঙ্গালীর মহান ভাষা আন্দোলনকে। আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপনের অংশ হিসেবে বেঙ্গলি ইনফরমেশন এন্ড এমপ্লয়মেন্ট সার্ভিসেস (বায়েস) শিশুদের এক চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা ও আলোচনা সভার আয়োজন করে।১৮ ফেব্রুয়ারি, শনিবার টরন্টোর ডেনফোর্থ এভিনিউস্থ এক্সেস পয়েন্টে এ প্রতিযোগিতা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে স্থানীয় এমপি, সিটি কাউন্সিলর, বিপুল সংখ্যক প্রতিযোগী ও কমিউনিটির বিশিষ্ঠজনরা উপস্থিত ছিলেন।



শিশুদের চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার বিষয় ছিল আমার সংস্কৃতি, আমার ভাষা। প্রায় অর্ধ শতাধিক শিশু চিত্রশিল্পী প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে। শিশু শিল্পীরা জল রঙ, অয়েল প্যাস্টেল (মোমের রঙ) কাঠ পেন্সিলের রঙে মনের মাধুরি মিশিয়ে ভাষার জন্য বাঙালীদের মহান আত্মত্যাগ, শহীদ মিনার আর স্মৃতিময় সেসব বীরত্মহগাঁথার দৃশ্য ক্যানভাসে ফুটিয়ে তুলেছে। ক্ষুদে শিল্পীদের রঙ তুলির আঁচড়ে নান্দনিক চিত্রকর্মগুলো বায়ান্নর ভাষা আন্দোলন, শহীদ মিনার আর রূপসি বাংলার প্রতিচ্ছবি। কোমল হাতের সুনিপুন ছোঁয়ায় আঁকা ছবিগুলো প্রতিনিধিত্ব করে বাংলাদেশকে, দেশের সংস্কৃতিকে।



দুটি বিভাগে আয়োজিত ছয় থেকে বারো বছরের শিশুদের এ প্রতিযোগিতায় যথাক্রমে জোরাইদা খান ও মোহাম্মদ তাহসিন প্রথম, সুবহা মান্নান ও মাসুদা জাবিন দ্বিতীয় এবং সাদমান মাহবুব ও সামিয়া ইসলাম তৃতীয় হন।বিচেস ইস্ট ইয়র্কের নেথেনিয়াল স্মিথ এমপি, টরন্টো সিটি কাউন্সিলর জেনেট ডেভিস, সাফসের সাবেক নিরবাহী পরিচালক ও বায়েসের উপদেষ্টা প্রফেসর ড. কাজী সদরুল হক, চলচিত্র নির্মাতা ফুয়াদ চৌধুরী, নাট্যকর্মী সাবিনা বারী লাকী, সমাজকর্মী ড. নূর কাজী, নুরুল ইসলাম, জয়নুল আবেদীন, সাংবাদিক মাহবুবুল হক ওসমানী, বায়েসের পরিচালক আবদুল হালিম মিয়া আলোচনায় অংশ নেন ও বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরন করেন। বায়েসের অন্যতম পরিচালক কাজী হাসানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের চেয়ারপারসন গোলাম মোস্তফা, নির্বাহী পরিচালক ইমাম উদ্দিন, জেনারেল সেক্রেটারি দিলরুবা খানম, পরিচালক সাদি খান, রাবেয়া শাহনাজ পারভীন, সাংবাদিক শওগাত আলী সাগর, বিসিএসের ড. নাসিমা আখতার প্রমুখ। প্রতিযোগিতার বিচারকের দায়িত্ব পালন করেন বিশিষ্ট চিত্রশিল্পী মাইনুর মঈন ও উৎপল নীল।বায়েসের সদস্য, সেচ্ছাসেবক ও কমিউনিটির বিভিন্ন শ্রেণী ও পেশার প্রতিনিধিগণ আলোচনা ও পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।



আলোচনায় বক্তারা বলেন ভাষার মর্যাদা রক্ষার জন্য রক্তদান পৃথিবীর ইতিহাসে বিরল। আর টরন্টোয় জন্ম ও বেড়ে ওঠা শিশুদের মাঝে বাংলাদেশ, এর ইতিহাস, সংস্কৃতিকে তুলে ধরার ক্ষেত্রে বায়েস যে প্রচেষ্ঠা চালিয়ে যাচ্ছে তা নিঃসন্দেহে প্রশংসনীয়। অনুষ্ঠানটি আয়েজনে সহায়তা করেন রিয়েলটর দেওয়ান আহমেদ।শিশুদের রঙ-তুলিতে মহান একুশে

শিশুদের রঙ-তুলিতে মহান একুশে


১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৪:৩৮:১৯